ফ্রান্সে ‘সন্ত্রাসী হামলা’য় ১ পুলিশ নিহত, দায় স্বীকার আইএসের

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে ‘সন্ত্রাসী হামলায়’ এক পুলিশ সদস্য নিহত ও আরো দুইজন আহত হয়েছেন। পরে পুলিশের গুলিতে হামলাকারীও নিহত হয়েছেন। স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, ৩৯ বছর বয়সী ওই হামলাকারী শহরের পাশেই বাস করতো। তাকে সম্ভাব্য ইসলামি উগ্রবাদী বলে ধারণা করছে ফরাসি কর্তৃপক্ষ। তবে এখনো হামলাকারীর নাম প্রকাশ করেনি তারা।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র পিয়েরে অঁরি ব্রাঁদে জানান, স্থানীয় সময় রাত নয়টার দিকে প্যারিসের চ্যাম্পস এলিসি এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশ বাসের পাশে একটি গাড়ি এসে থামে। ওই গাড়ি থেকে নেমে হামলাকারী তার পিস্তল থেকে পুলিশের দিকে গুলি ছুড়তে থাকে।

পরে হামলাকারী পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে তিনি নিহত হন। ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে এই ঘটনা ঘটল।

এদিকে হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে সন্ত্রাসী গোষ্ঠি ইসলামিক স্টেট (আইএস)। তাদের আমাক নিউজ এজেন্সিতে দেয়া বিবৃতিতে ওই হামলাকারীর নাম আবু ইউসুফ আল-বেলজিকি বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তাকে কথিত ‘খিলাফতের সৈনিক’ বলেও দাবি করেছে তারা।

হামলার পর জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক ভাষণে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ বলেন, হামলাকে তিনি ‘জঙ্গি হামলা’ বলে ধারণা করছেন। ওই হামলার পরই বিষয়টি নিয়ে তার প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। নিহত পুলিশ সদস্যকে জাতীয় সম্মাননা দেয়ার কথাও জানান ওলাঁদ।

ফ্রান্সের এই হামলাকে ‘জঙ্গি হামলা’ বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
প্রসঙ্গত, ফ্রান্স দীর্ঘদিন ধরেই সন্ত্রাসী হামলার শিকার। ২০১৫ সালে প্যারিসে একটি নাইট ক্লাবে হামলার মধ্য দিয়ে দেশটিতে সন্ত্রাসী হামলা শুরু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৫ ঘণ্টা, ২১ এপ্রিল ২০১৭

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস

শেয়ার করুন