বাটলার-রানার তাণ্ডবে ম্লান আমলার ঝড়ো সেঞ্চুরি

লাসিথ মালিঙ্গাকে বেধড়ক পিটিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন হাশিম আমলা। তার ৬০ বলে খেলা অপরাজিত ১০৪ রানে ভর করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৯৮ রান।

স্কোরবোর্ডে ১৯৮ রান স্বস্তি দিচ্ছিল গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও পাঞ্জাবের সমর্থকদের। কিন্তু দিনশেষে স্বস্তি থাকেনি। জস বাটলার ও নিতিশ রানার ব্যাটিং তাণ্ডবে ২৭ বল ও ৮ উইকেট হাতে রেখেই জয় তুলে নিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ফলে বৃথা গেল আমলার সেঞ্চুরি।

বৃহস্পতিবার ইন্দোরের হলকার স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৬৯ রান তোলে পাঞ্জাব। পরের ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে তোলে ১২৯ রান! তাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯৮ রানের সংগ্রহ পায় প্রীতি জিনতার দল।

ব্যাট হাতে হাশিম আমলা ৬০ বলে ৮ চার ও ৬ ছক্কায় অপরাজিত ১০৪ রান করেন। ১৮ বলে ৪টি চার ও ৩ ছক্কায় ৪০ রান করে আউট হন ম্যাক্সওয়েল। ২৬ রান করেন শন মার্শ। বল হাতে মুম্বাইর মিশেল ম্যাক্লেনাঘান ২টি উইকেট নেন। জাসপ্রিত বুমরাহ ও ক্রুনাল পান্ডিয়া ১টি করে উইকেট নেন।

১৯৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পার্থিব প্যাটেল ও জস বাটলার উদ্বোধনী জুটিতে ৮১ রান তোলেন। এই রানের মাথায় মার্কাস স্টয়েনিসের বলে পার্থিব প্যাটেল ১৮ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৩৭ রান করে আউট হন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে বাটলার ও নিতিশ রানা ৮৫ রান তোলেন। দলীয় ১৬৬ রানের মাথায় মোহিত শর্মার বলে আউট হন বাটলার। যাওয়ার আগে ৩৭ বলে ৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৭৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে যান।

বাটলার আউট হলেও নিতিশ রানা তার তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন। তার সঙ্গে হার্দিক পান্ডিয়াও সমান তালে রান তোলেন। তাতে ১৫.৩ ওভারে ২ উইকেট হারিয়েই জয়ের বন্দরে নোঙর করে মুম্বাই। নিতিশ রানা ৩৪ বলে ৭টি ছক্কায় ৬২ রানে অপরাজিত থাকেন। তার সঙ্গে ৪ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন পান্ডিয়া।
ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন জস বাটলার।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৩ ঘণ্টা, ২১ এপ্রিল ২০১৭

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস

শেয়ার করুন