কিশোরগঞ্জের ২ রাজাকারের ফাঁসির আদেশ

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত কিশোরগঞ্জ সদর ও নিকলী উপজেলার দুই রাজাকার সৈয়দ মোহাম্মদ হুসাইন ও মোসলেম প্রধানকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। বুধবার বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন। বিচারিক প্যানেলের অন্য দুই সদস্য হচ্ছেন বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দী।

সৈয়দ মোহাম্মদ হুসাইন ও মোসলেম প্রধানের বিরুদ্ধে ছয়টি অভিযোগই প্রমাণিত হয়েছে। মোসলেম প্রধান কারাগারে থাকলেও হোসাইন মামলার শুরু থেকেই পলাতক। এ মামলায় ট্রাইব্যুনালে প্রসিকিউশনের পক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজ, আসামিদের পক্ষে অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার পালোয়ান।

গত বছরের ৯ মে দুই আসামির বিরুদ্ধে ৬ ধরনের অভিযোগ আমলে নিয়ে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। এর আগে ২০১৫ সালের ৭ অক্টোবর দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করে ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। ওই বছরের ৩ ডিসেম্বর দুইজনের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) দাখিল করা হয়।

এতে হত্যা, গণহত্যা, লুণ্ঠন, অপহরণ, নির্যাতনসহ ৬ ধরনের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ দাখিল করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ৬২ জনকে হত্যা, ১১ জনকে অপহরণ ও আটক এবং ২৫০ বাড়িঘরে অগি্নসংযোগ ও লুটপাটের অভিযোগ আনা হয়। ট্রাইব্যুনালে বিচারের সময় দুইজনের বিরুদ্ধে ২৩ জন এবং আসামিপক্ষে ১ জন সাফাই সাক্ষ্য দেন।

জানা গেছে, সৈয়দ মোহাম্মদ হুসাইন বর্তমানে মালয়েশিয়ায় পলাতক। হুসাইনের বর্তমান ঠিকানা খিলক্ষেত থানার পিংক সিটির ৬ নম্বর রোডে বি ব্লকের ২ নম্বর বাড়ি। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় নিকলী থানার রাজাকার কমান্ডার ছিলেন।

বাংলাদেশ সময় ১২২৮ ঘণ্টা, ১৯ এপ্রিল, ২০১৭

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস

শেয়ার করুন