নাঈম আশরাফকে স্বীকার করতে ভয় কেন তাদের?

মতামত

দীপু সারোয়ার
বনানীর ‘দ্য রেইনট্রি’ হোটেলে ছাত্রী ধর্ষণের মামলার পাঁচ আসামির মধ্যে সবাই গ্রেফতার হয়েছে। সর্বশেষ বুধবার মুন্সীগঞ্জ থেকে গ্রেফতার হয় মামলার অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফ ওরফে হাসান মোহাম্মদ হালিম। পাঁচ আসামির মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত সে। ‘বিনোদন’ ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত নাঈমকে খোদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নাটের গুরু হিসেবে উল্লেখ করেছে। শুধু ধর্ষণের মামলার আসামি হিসেবে তার নাম আলোচিত হচ্ছে তা কিন্তু নয়। অন্য আরও অনেক কারণেও তার নাম এখন আলোচনায়। পলাতক অবস্থায়ও সে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খোলা রেখেছিল। ইনস্টাগ্রামেও সরব ছিল সে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম চালু রাখার কারণেও আলোচিত হয় তার নাম।

ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম চালু রেখে নাঈম আশরাফ আসলে কী বার্তা দিতে চেয়েছিল তা আমাদের জানা নেই। এ বিষয়ে কিছু একটা ধারণা করা ছাড়া আর কিছুই করার নেই আমাদের।

কোনও অপরাধে আলোচিত হওয়ার পর অপরাধীরা সাধারণত তাদের মুঠোফোন, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সংযোগগুলো বন্ধ করে দেয়। ধর্ষক হিসেবে পরিচিতি পাওয়া নাঈম আশরাফ সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট চালু রাখার সাহস দেখিয়েছে সে।

নাঈম আশরাফ তার সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমের অ্যাকাউন্টগুলো কেন চালু রেখেছিল- এর জবাব সে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিতে পারবে। অবশ্যই এর ব্যাখ্যা তাদের কাছে রয়েছে বলে মনে করি।

গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব, মডেল, চিত্রনায়িকা, ফ্যাশন ডিজাইনার, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তা, রাজনীতিকসহ অনেকের সাথে তোলা নাঈম আশরাফের ছবি এরইমধ্যে গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। এসব ছবি তার ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকেই পাওয়া গেছে। এ অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে আমাদের মনে হতেই পারে যোগাযোগের জায়গাগুলোর জানান দিতেই ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খোলা রেখেছিল সে। তবে এসব স্রেফ ধারণা হিসেবেই বিবেচিত হবে। কারণ, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এসব নিয়ে কোনও বক্তব্য দেয়নি।

যাদের সাথে হাসি মাখা ছবি তুলে নাঈম আশরাফ আলোচিত, সেই তারা কিন্তু এখন তাকে অস্বীকার করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা এ নিয়ে সরবও হয়েছেন। গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে প্রতিবাদও করেছেন। তাদের পক্ষেও অনেকে লিখছেন, বলছেন। তবে যেসব ছবি ইতোমধ্যে প্রকাশ হয়েছে সেসব ছবি হঠাৎ তোলা বলে মনে হচ্ছে না আমাদের। ছবিগুলো আসলে নাঈম আশরাফের সাথে তাদের ঘনিষ্ঠতারই প্রমাণ।

নাঈম আশরাফের ‘বিনোদন’ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘ইমেকার্স’ আয়োজিত কয়েকটি অনুষ্ঠানের কথা উল্লেখ করলে বিনোদন জগতে তার প্রভাব বোঝা যাবে। হাসান মোহাম্মদ হালিম ওরফে নাঈম আশরাফের দু’টি টেলিভিশন স্টেশনে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ২০১৪ সালে ভারতের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী অরিজিৎ সিংকে নিয়ে ঢাকায় ‘অরিজিৎ সিং লাইভ’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল নাঈম আশরাফের প্রতিষ্ঠান ‘ইমেকার্স’। ২০১৫ সালে ‘নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ কনসার্ট’ এবং ‘কনসার্ট ফর নেপালে’র আয়োজনও করেছিল সে।

গত বছর তার ‘ইমেকার্স’র উদ্যোগে বাংলাদেশে আসে ভারতের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নেহা কাক্কার। ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয় ‘নেহা কাক্কার লাইভ ইন কনসার্ট’। এছাড়া আরও অনেক প্রতিষ্ঠানের ‘ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট’র কাজও করেছে নাঈম আশরাফ। যদিও গণমাধ্যমে সেসব আলোচনায় নেই।

যাদের সাথে নাঈম আশরাফের এক সময় ঘনিষ্ঠতা ছিল সেই তারা হঠাৎ করে কেন বদলে গেলেন? যারা তার কাছ থেকে সুবিধা নিয়েছেন, যাদের সাথে তার ‘পার্টনারশিপ’ ছিল তারা আজ কেন তাকে অস্বীকার করছেন? এসব প্রশ্নের জবাবে দ্বিধা না রেখেই বলা যায়, নাঈম আশরাফের পরিচিতি এখন ধর্ষক হিসেবে। আর এই পরিচিতির কারণেই ‘শুভানুধ্যায়ী’রা তাকে ত্যাগ করেছে। এখন তাদের কাছে অচ্ছুৎ, অস্পৃষ্য সে।

সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার গান্দাইল ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা নাঈম আশরাফের আসল নাম হাসান মোহাম্মদ হালিম। এলাকায় আপাদমস্তক ‘চিটার’ হিসেবে পরিচিতি তার। এই প্রতারক প্রতারণার শুরুতেই বাবা-মা’র দেওয়া নাম পরিবর্তন করেছিল। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের ছেলের নাম নাঈম আশরাফ। তার নামেই সবখানেই পরিচয় দিতো সে। মিথ্যা পরিচয়ে তিনটি বিয়ে করে নাঈম। এর মধ্যে দুই স্ত্রী প্রতারণা জানার পর ত্যাগ করেছে তাকে।

‘শর্টকাট’ পথে বিত্তবান হওয়ার আকাঙ্ক্ষায় ‘বিনোদন’ ব্যবসায়ী বনে যাওয়া এই প্রতারকের প্রতারণার শিকার অসংখ্য মানুষ। সমাজের উচুতলার মানুষের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলেছে সে। দিনমজুর বাবা-মা’র সন্তান হওয়া দোষের কিছু নয়। আর পরিশ্রম করে বড় হওয়ার মধ্যে, বিত্তবান হওয়ার মধ্যেও দোষের কিছু নেই। তবে বাবা-মা’র প্রকৃত পরিচয় গোপন করে একাধিক বিত্তবানকে বাবা বলে পরিচয় দিয়ে নাঈম আশরাফ যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে তার নজির খুব একটা নেই। এই প্রতারক ও তার সহযোগিদের মুখোশ উন্মোচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কতটা কার্যকর ভূমিকা পালন করে তা-ই এখন দেখার বিষয়।

লেখক : বিশেষ প্রতিনিধি, একুশে টেলিভিশন

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৬ ঘণ্টা, ১৮ মে ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসডিএম

শেয়ার করুন