Home রংপুর বিভাগ গাইবান্ধা গাইবান্ধায় বন্যায় আরও দুই জনের মৃত্যু, একজন নিখোঁজ

গাইবান্ধায় বন্যায় আরও দুই জনের মৃত্যু, একজন নিখোঁজ

- Advertisement -

গাইবান্ধায় বন্যায় শুক্রবার জহুর আলী (৪০) ও মুন্নী খাতুন (১০) নামে আরও ২ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে জেলায় বন্যায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫ জনে। এছাড়া সোলেমান আলী (৬৫) নামে একজন বন্যার পানির স্রোতে নিখোঁজ হয়েছেন।

নিহত জহুর আলী সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের চারিতাবাড়ী গ্রামের ফরমান আলীর ছেলে ও মুন্নী খাতুন গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকল শ্রমিক কলোনির বাসিন্দা মনু মিয়ার মেয়ে। নিখোঁজ সোলেমান আলী গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের কিশামত দুর্গাপুর গ্রামের মৃত. কাদের বক্সের ছেলে।

- Advertisement -

হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাফিউল ইসলাম জিমি জানান, শুক্রবার সকালে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে কলাগাছের ভেলাযোগে বাড়ি ফেরার পথে বিবিসির মোড় এলাকায় বন্যার পানির ওপর ঝুলানো বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে জহুর আলী পানিতে পড়ে যান। ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান।

এদিকে মহিমাগঞ্জ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ জানান, দুপুরে বাড়ির পাশে বন্যার পানিতে কয়েকজন শিশু খেলা সময় হঠাৎ মুন্নী ডুবে যায়। এ সময় বাকি শিশুদের চিৎকার ও কান্নাকাটি শুরু করলে এলাকাবাসী এসে শিশুটিকে মৃত্যু অবস্থায় উদ্ধার করে।

গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ম্যানেজার রতন শর্মা জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে মাছ ধরতে বাড়ির পাশে বন্যার পানিতে নামলে স্রোতের তোড়ে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ হন সোলেমান আলী। খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ব্যাপক তল্লাসী চালিয়েও কোন সন্ধান পায়নি।

প্রসঙ্গত এর আগে সদর উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের গোদারহাট এলাকার সোহাগ (৫) ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলার গেন্দুরাম গ্রামের আনোয়ারুল ইসলাম (৩২) বন্যার পানিতে ডুবে এবং সাঘাটার কুন্ডুপাড়ায় উজ্জল কুমার (১৫) সাপের কামড়ে মারা গেছেন।

- Advertisement -