Home ক্রিকেট নতুন শুরুর আশায় বাংলাদেশ

নতুন শুরুর আশায় বাংলাদেশ

- Advertisement -

২০১৭ সালট মাহমুদউল্লাহর জন্য অনেক উত্থান পতনের। বাজে ফর্মের কারণে টেস্ট দল থেকে জায়গা  হারিয়েছিলেন।  বিশ্রামের সুবাধে ফেরেন দুই সিরিজ পরই। বছরের শেষ দিকে আবার পেলেন টেস্ট সহ-অধিনায়কত্ব। আসছে বছরে নতুন আলোর সন্ধান করছেন সাদা পোশাকে সাকিবের ডেপুটি।

বিপিএলের পর বিশ্রামে ছিলেন। দুদিন পর শুরু হবে জাতীয় দলের ক্যাম্প। তার আগেই মিরপুরে এলেন ফিটনেস ট্রেনিং করতে। নতুন বছরে করলেন নতুন শুরুর প্রত্যাশা, ‘শেষ ৩ বছর খুব ভালো গেছে। ২০১৮ তে অনেক খেলা আছে। নতুন বছরের শুরুটা হতে যাচ্ছে হোম ভেন্যুতে। নিঃসন্দেহে সুবিধা। মনে হয় নতুন শুরু হতে পারে।’

- Advertisement -

টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ক আগেও ছিলেন তিনি। সরে যাওয়া দায়িত্ব আবার এসে জুটেছে কাঁধে। পুরো ব্যাপারটাকেই দেখছেন স্বাভাবিক হিসেবে,

‘বিসিবি যেটা ভালো মনে করেছে ওই সময়। ওনাদের সিদ্ধান্ত ছিল, আবার দায়িত্বটা দেওয়া হয়েছে। আমি চেষ্টা করবো আমার তরফ থেকে পুরোপুরি যেন ওই দায়িত্বটা পালন করতে পারি।’

ছন্দে না থাকলেও শ্রীলঙ্কাকে সমীহ মাহমুদউল্লাহর। ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইয়ে থাকা দুদলের লড়াই নাকি হবে জম্পেশ, ‘শ্রীলঙ্কা অবশ্যই খুব ভালো দল। যদিও ওরা ভারতের কাছে হেরেছে। তারপরও আমি মনে করি এই সিরিজটার প্রতি তাদের আলাদা নজর থাকবে। আমার মনে হয় খুব ভালো একটা সিরিজ হবে আশা করি।’

শ্রীলঙ্কার কোচ হয়ে আসবেন চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে। কদিন আগেই তিনি ছিলেন মাহমুদউল্লাহদের ওস্তাদ। এই সিরিজে হেড কোচ ছাড়াই খেলবে বাংলাদেশ। তাতে কোন সমস্যা দেখছেন না, ‘আমার মনে হয় না (কোন সমস্যা)। সুজন ভাই, রিচার্ড, ওয়ালশ আছে। সবাই একট ইউনিট হিসেবে ভাল টিম ম্যানেজম্যান্টেই আছে আমরা।’

- Advertisement -