পাবনায় ছাত্রদল নেতাকে আপত্তিকর অবস্থায় ধরে গণপিটুনি

গতকাল সোমবার দুপুরে স্থানীয় জনতা ওই গৃহবধূর এক পাতানো ভাইয়ের বাসা থেকে দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে। পরে মাসুদ রানা উত্তেজিত জনতার গণধোলাইয়ের শিকার হন।

এলাকাবাসীর গণপিটুনির শিকার মো. মাসুদ রানা
প্রতীকী ছবি

এক ছাত্রদল নেতাকে তার প্রেমিকার সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে এলাকাবাসী গণপিটুনি দিয়েছে। এ ঘটনা ঘটে সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে পাবনায় বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার রূপপুর ইউনিয়নের ভুয়াপাড়া এলাকায়।

গণপিটুনির শিকার মো. মাসুদ রানা (৩২) পাবনা জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও বেড়া উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক বলে জানা যায়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, রূপপুর ইউনিয়নের এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে বেশ কিছুদিন যাবৎ পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল মাসুদ রানার। গতকাল সোমবার দুপুরে স্থানীয় জনতা ওই গৃহবধূর এক পাতানো ভাইয়ের বাসা থেকে দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে। পরে মাসুদ রানা উত্তেজিত জনতার গণধোলাইয়ের শিকার হন। এক পর্যায়ে তিনি দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই গৃহবধূকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমিনপুর থানায় নিয়ে যায়।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, আটক নারীকে উত্তেজিত জনতার রোষানল থেকে রক্ষা করতে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়। রাতে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ দেননি বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে ছাত্রদল নেতা মাসুদ রানার সঙ্গে যোগাযোগ করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান প্রিন্স বলেন, মঙ্গলবার তিনি বিষয়টি জানতে পারেন। এর সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে এটি তার ব্যক্তিগত বিষয়। কাজেই দল তার দায় নেবে না।