প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিলেন বুস্টার ডোজ

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিলেন বুস্টার ডোজ
সংগৃহীত ছবি

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার তৃতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। স্থানীয় সময় সোমবার বিকেলে হোয়াইট হাউসে বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা নেন তিনি। আজ মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

গেলো সপ্তাহে ৬৫ বছরের বেশি ঝুঁকিতে থাকা বাসিন্দাদের বুস্টার ডোজ নেয়ার অনুমোদন দেয় সিডিসি। যদিও শুরু থেকেই বুস্টার ডোজের সমালোচনা করে আসছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্বের সবার কাছে ভ্যাকসিন পৌঁছানোর আগে বুস্টার ডোজ না নেয়ার পরামর্শও দেয়া হয়। বলা হয়, বেশিরভাগ দরিদ্র দেশে এখনও ১ শতাংশ মানুষও টিকার আওতায় আসেনি। সবার জন্য দ্রুত টিকা নিশ্চিতের জন্যই বুস্টার ডোজের সমালোচনা করা হয়েছে।

এদিকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের ভ্যাকসিন বিরোধীদের দ্রুত টিকা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের অনেক মানুষ এখনও টিকা নিতে চান না। এমন অনেক মানুষ আছেন যারা টিকার একটি ডোজও নেননি। এর মাধ্যমে তারা (টিকা বিরোধীরা) দেশকে বিপর্যয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এএফপি জানিয়েছে, সোমবার বিকেলে নিজের বাম হাতের জামা গুটিয়ে ফাইজারের তৃতীয় ডোজের টিকা নেন জো বাইডেন। এর মাত্র একদিন আগে ৬৫ বছরের বেশি বয়সী সকল মানুষের জন্য টিকার বুস্টার ডোজের অনুমোদন তার প্রশাসন।

টিকা নেওয়ার পর ৭৮ বছর বয়সী জো বাইডেন কৌতুক করে বলেন, ‘আমি জানি, আমাকে দেখে (বয়স্ক) মনে না হলেও আমার বয়স আসলে ৬৫ বছরের বেশি।’

৬৫ বছরের বেশি বয়সী সকল মানুষ ছাড়াও প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে যারা উচ্চ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন তারাও বুস্টার ডোজ নিতে পারবেন। এছাড়া পেশাগত কাজের কারণে ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে; এমন ব্যক্তিদেরও বুস্টার ডোজ গ্রহণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সূত্রঃ এএফপি