বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে শুভ সূচনা টাইগ্রেসদের

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে শুভ সূচনা টাইগ্রেসদের
টুইটার সংগৃহীত ছবি

পাকিস্তানকে হারিয়ে বাংলাদেশ নারী দলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শুরুটা দুর্দান্ত হলো। বড় লক্ষ্য তাড়ায় শেষ চার ওভারে বাংলাদেশের ৪১ রান প্রয়োজন ছিল। ক্রিজে তখন সেট ব্যাটার রুমানা আহমেদ ও নতুন ব্যাটার সালমা খাতুন। ১৮তম ওভারকে দারুণভাবে কাজে লাগান এই যুগল। ওমাইমা সোহেলের করা সেই ওভারে ১৮ রান তুলে নিয়ে ম্যাচের গতি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন তারা। রুমানা ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন। আর তাতেই বিশ্বকাপ বাছাই জয় দিয়ে শুরু করলো টাইগ্রেসরা।

টুইটার সংগৃহীত ছবি

আজ রোববার জিম্বাবুয়ের হারারেতে ওল্ড হারারিয়ানস মাঠে তিন উইকেটের জয় পেয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। পাকিস্তানের দেওয়া ২০২ রানের লক্ষ্য ২ বল হাতে রেখেই পেরিয়ে যায় নিগার সুলতানার নেতৃত্বাধীন টাইগ্রেসরা। ব্যাট হাতে ৪৪ বলে ৬ বাউন্ডারিতে দুর্দান্ত অর্ধশতকে অপরাজিত ছিল রুমানা।

লক্ষ্য তাড়ায় শুরুর দিকে কচ্ছপ গতির ব্যাটে এগোতে থাকে বাংলাদেশ। নির্ভরযোগ্য ওপেনার মুর্শিদা খাতুনের ব্যাটে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। তবে শারমিন নাহার ও ফারজানার হকের ব্যাটে রান পেলেও সেটা ছিল ধীর গতির। দল তখন প্রায় হারের দিকে এগোচ্ছিল। দলের বিপদের সময় ব্যাট করতে আসা রুমানা আহমেদ ও রিতু মনির ব্যাটে ম্যাচে ফিরে বাংলাদেশ।

প্রথম ৪০ ওভারে মাত্র ১১৩ তোলা বাংলাদেশের সামনে শেষ দশ ওভারে ৮৯ রানের লক্ষ্য। তবে ব্যাট হাতে রিতু-রুমানার যুগল বন্দিতে ম্যাচ ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণে আসতে থাকে। ৪৫তম ওভারে ফাতিমা সানাকে পরপর তিনটি চার হাঁকিয়ে বোল্ড হন রিতু। ৩৭ বলে ৩৩ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন তিনি।

রিতুর বিদায়ের পর নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসা লতা মন্ডল ও ফাহিমা খাতুন দুইজনে ফেরেন শূন্যরানে। শেষের দিকে সালমা খাতুনকে নিয়ে ওমাইমার এক ওভার থেকে ১৮ রান আদায় করেন রুমানা। তাতেই দলকে জয়ের কাছাকাছি টেনে নেন তিনি। আর তাতেই পাকিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপ বাছাই শুরু হলো বাংলাদেশের মেয়েদের। ৪৪ বলে ৬টি বাউন্ডারিতে দারুণ অর্ধশতকে অপরাজিত ছিলেন রুমানা।