নীলফামারীতে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

Nilphamari

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে নীলফামারীর জলঢাকায় কারিমুল হোসেন (২৩) নামে এক জনসহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশে। আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুন) দুপুরে তাদের গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে দু’জনকেই নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বুধবার (১০ জুন) রাতে নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীর বাবা খয়রাত হোসেন বাদী হয়ে কারিমুলকে আসামি করে থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দাখিল করেন। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাতেই অভিযুক্ত কারিমুলকে জলঢাকা বাসস্ট্যান্ড থেকে গ্রেফতার করা হয়।

কারিমুল পৌরসভার বগুলাগাড়ী এলাকার বারঘরিপাড়ার সুলতান আলীর ছেলে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ওই যুবক লেলিন নামে আরও একজন ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে জানালে তাকেও গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার দু’জনের বাড়ি জলঢাকা পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বারঘরিপাড়া এলাকায়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, অষ্টম শ্রেণির ওই স্কুলছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছিলেন কারিমুল। একপর্যায়ে ওই ছাত্রী গর্ভবতী হয় এবং পরিবারকে বিষয়টি জানায়। ছাত্রীটির গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য ভয়ভীতি প্রদর্শনও করেন কারিমুল।

জলঢাকা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথমে কারিমুলকে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে স্কুলছাত্রীটির জবানবন্দিতে জানা যায় এ ঘটনার সঙ্গে লেলিন নামে আরও একজনের সম্পৃক্ততা আছে। পরে তাকেও গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই দুইজন আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।