লিচুর যত উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

লিচুর যত উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া
প্রতীকী ছবি

লিচু একটি অতি পরিচিত রসালো ফল। আমাদের প্রায় সবারই বেশ প্রিয় মধুমাসের এ ফলটি।

গত ক’দিন ধরেই বাজারে পাওয়া যাচ্ছে লিচু। গ্রীষ্মকালীন রসালো এ ফলটি খুব কম সময়ের জন্য বাজারে আসে। স্বাদ ও গন্ধের জন্য লিচু অনেকের কাছেই প্রিয়। শুধু স্বাদই নয়, পুষ্টিগুণেও ভরপুর এ ফল। নানা রকম অসুখের থেকে আপনাকে দূরে রাখবে এ ফল। আবার লিচু বেশি খেলেও হতে পারে ক্ষতি।

লিচুর উপকারী দিকগুলো হলো –

১> লিচু শরীরের বিভিন্ন ধরনের ব্যথা দূর করতে কাজ করে।
২> রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে লিচু।
৩> লিচুতে ভিটামিন ও নানা খনিজ উপাদান থাকায় এ ফল রক্তের উপাদান তৈরিতে সহযোগিতা করে।
৪> লিচু ত্বকের বলিরেখা দূর কর।
৫> লিচু বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না এবং ত্বক উজ্জ্বল করে।

এ ফলটির যেমন ভালো দিক আছে, তেমনি অতিরিক্ত খেলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও হতে পারে-

লিচুর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলো নিম্নরূপঃ

১> লিচু মাত্রাতিরিক্ত খেলে অস্বাভাবিকভাবে রক্তচাপ কমে যেতে পারে।
২> লিচু ওজন বৃদ্ধি করে।
৩> লিচুতে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, জরুরি ফ্যাটি এসিড নেই। ফলে বেশি পরিমাণে লিচু খেলে তা শরীরের স্বাভাবিক ব্যালেন্স নষ্ট করে।
৪> খালি পেটে লিচু খেলে শরীরে বিষক্রিয়া হতে পারে।
৫> লিচু রক্তের গ্লুকোজ কমে যায়।

তাই খেতে সুস্বাদু হলেও ইচ্ছেমত লিচু খাওয়ার সুযোগ নেই। দিনে ১০-১২ টি লিচু খাওয়া যেতে পারে। বয়স, শরীর, অসুস্থতা ইত্যাদি বিষয় বিবেচনায় নিয়ে পরিমিতভাবে লিচু বা যেকোনো ফল খেতে হবে।