শৈত্যপ্রবাহ দিয়েই মাঘের শুরু, তাপমাত্রা আরও কমবে

শৈত্যপ্রবাহ দিয়েই মাঘের শুরু, তাপমাত্রা আরও কমবে
শৈত্যপ্রবাহ - প্রতীকী ছবি

বৃষ্টির পর মৃদু শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে দেশের উত্তরাঞ্চলের দুটি জেলায়। দেশের অন্যান্য অঞ্চলেরও তাপমাত্রা দ্রুত কমছে। তাই শৈত্যপ্রবাহের আওতা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পৌষের শেষের দিকে কিছুদিন ধরে শীত অনেকটাই কমে গিয়েছিল। গত ১১ জানুয়ারি শুরু হয় বৃষ্টি। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সেই হালকা বৃষ্টি কয়েকদিন অব্যাহত ছিল।

গতরাত থেকে ঢাকায় আগের চেয়ে বেশি শীত অনুভূত হচ্ছে। অন্যান্য অঞ্চলেও শীত বেড়েছে বলে জানা গেছে। এখন তাপমাত্রা কমে গিয়ে শৈত্যপ্রবাহ নিয়ে এসেছে শীতের দ্বিতীয় মাস মাঘ। আজ রোববার মাঘের ২ তারিখ।

চলতি শীত মৌসুমে এর আগে তিন দফা শৈত্যপ্রবাহ এসেছে। তবে কোনোটিই দুদিনের বেশি স্থায়ী হয়নি বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে।

গতকাল শনিবার সকাল ৬টা থেকে আজ রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা ও বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চলে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। ঢাকায়ও সামান্য বৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগের ফেনীতে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আপাতত আর বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলেন, আজ রোববার সকালে কুড়িগ্রাম এবং পঞ্চগড় জেলায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। এ শৈত্যপ্রবাহ রংপুর বিভাগের অবশিষ্টাংশ এবং রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু এলাকায় বিস্তার লাভ করতে পারে।

আজ সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়, ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া কুড়িগ্রামের রাজারহাটে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। একদিনের ব্যবধানে ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ দশমিক ২ ডিগ্রি থেকে কমে হয়েছে ১৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম।

আজ রোববার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।