হঠাৎ বন্ধ হওয়ার কারণ জানালো ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

হঠাৎ বন্ধ হওয়ার কারণ জানালো ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক টানা ৬ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর চালু হলো। একই সময়ে ফেসবুকের মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপের সেবাও পুনরায় চালু হয়।

গতকাল সোমবার (৪ অক্টোবর) রাত পৌনে ১০টার পর থেকে হঠাৎ করে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশ থেকে মোবাইল ও কম্পিউটারের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপ প্রবেশ করা যাচ্ছিলো না। ব্যবহারকারীরা ফেসবুকে প্রবেশের পর এরর বা ব্রাউজার কানেক্ট হচ্ছে না বলে তাদের ডিভাইসের পর্দায় ভেসে ওঠে। পরবর্তীতে সাড়ে ৪টার পরে সাইটগুলো ফিরে আসতে শুরু করে।

এ অবস্থায় সমস্যার কারণ জানিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। রাউটারগুলোতে ত্রুটিপূর্ণ কনফিগারেশন পরিবর্তনকে সমস্যার মূল কারণ বলে দাবি করছে তারা।

এক পোস্টে ফেসবুক জানিয়েছে, সমস্যার সমাধান করতে গিয়ে আমাদের ইঞ্জিনিয়ারিং দল জানতে পেরেছে যে, ব্যাকবোন রাউটারে কনফিগারেশন পরিবর্তনের কারণে এমনটি হয়েছে, যা আমাদের ডেটা সেন্টারের মধ্যে নেটওয়ার্ক ট্র্যাফিককে সমন্বয় করে।

সাময়িক এই সংকটে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৫১ হাজার ৪১২ কোটি টাকারও বেশি। এছাড়া শেয়ার বাজারেও ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে ফেসবুককে।

সমস্যা সমাধানের পর সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন জাকারবার্গ। ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি বলেন, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ এবং মেসেঞ্জার এখন অনলাইনে ফিরে এসেছে। আজকের এই সমস্যার জন্য দুঃখিত। আমি জানি যে আপনি আমাদের যত্নশীল ব্যক্তিদের সাথে সংযুক্ত থাকার জন্য আমাদের পরিষেবার উপর কতটা নির্ভর করেন।