মে’র সঙ্গে মতবিরোধ: পদত্যাগ করলেন ২ ব্রেক্সিট মন্ত্রী

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে ‘মতবিরোধের’ কারণে পদত্যাগ করেছেন ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ডেভিস ও তার দপ্তরের উপমন্ত্রী স্টিভেন বেকার। ব্রেক্সিট পরিকল্পনা মন্ত্রিসভার থেরেসা অনুমোদন পাওয়ার মাত্র দুই দিনের মাথায় আজ রোববার পদত্যাগ করলেন তারা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে দর কষাকষির দায়িত্ব দিয়ে ডেভিড ডেভিসকে ২০১৬ সালে মন্ত্রিসভায় আনেন থেরেসা মে।

পদত্যাগপত্রে ডেভিস লিখেছেন, প্রধানমন্ত্রী মে যে নীতি আর কৌশল নিয়ে অগ্রসর হচ্ছেন তাতে যুক্তরাজ্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়তে পারবে বলে তার মনে হচ্ছে না।

জবাবে থেরেসা মে লিখেছেন, শুক্রবার মন্ত্রিসভার সম্মতি পাওয়া প্রস্তাবকে যে ভাষায় ডেভিস বর্ণনা করেছেন, তার সঙ্গে তিনি একমত নন।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ডেভিস সরে যাওয়ায় তিনি দুঃখ পেয়েছেন। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসার জন্য যে দায়িত্ব তিনি এতদিন পালন করেছেন, সেজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাতে চান।
ব্রেক্সিট কী?

২০১৬ সালের গণভোটে যুক্তরাজ্যের জনগণ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দেয়। এই বিচ্ছেদকেই বলা হচ্ছে ব্রেক্সিট, যা ২০১৯ সালের মার্চের মধ্যে শেষ করতে দুই পক্ষের মধ্যে দর কষাকষি চলছে।

বাংলাদেশ সময়ঃ ১২০২ ঘণ্টা, ০৯ জুলাই, ২০১৮
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কেএস