আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কাজ, ৯ তরুণ-তরুণী আটক

সিলেট নগরীর আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় নয়জনকে আটক করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এদের মধ্যে ছয়জন নারী এবং তিনজন পুরুষ।

শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ সেলিম মিঞার নেতৃত্বে একদল পুলিশ হোটেল সোনালীতে (আবাসিক) অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

আটককৃতরা হলেন- কুমিল্লার মুরাদনগর থানার পান্নারপুল গ্রামের তরুণী (২৬), যশোরের শার্শা থানার ফুলমারা গ্রামের তরুণী (২৩), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার বিটঘর গ্রামের তরুণী (২৭), কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার চরগোয়ালী গ্রামের তরুণী (২৬), ময়মনসিংহের ফুলবাড়ী থানার তরুণী (২৩), কুমিল্লার মুরাদনগর থানার মরিচাকান্দি গ্রামের তরুণী (২৫), সিলেট নগরীর শিবগঞ্জ সাদীপুর এলাকার মৃত বিরাম রঞ্জন চক্রবর্তীর ছেলে সুজন চক্রবর্তী (৪৮), শিবগঞ্জ সেনপাড়া এলাকার রতন দেবের ছেলে শুভ দেব (২৭) ও শাহপরাণ থানাধীন খাদিমপাড়ার হানিফের ছেলে হৃদয় (২০)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ সেলিম মিঞা বলেন, নগরীর আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় নয়জনকে আটক করা হয়। পরে তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।