কেয়ামতের দিন যাদের সঙ্গে কথা বলবেন না আল্লাহপাক

মহান রাব্বুল আলামিন কিয়ামতের দিন তিন ব্যক্তির সাথে কথা বলবেন না, তাদের দিকে ফিরে তাকাবেন না এমনকি তিনি তাদের গোনহ থেকে পবিত্রও করবেন না। বরং তাদের জন্য রয়েছে কষ্টদায়ক শাস্তি। এ প্রসঙ্গে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার উম্মতকে সাবধান করে একটি গুরুত্বপূর্ণ হাদিস বর্ণনা করেছেন।

হজরত আবু যর রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘কিয়ামতের দিন আল্লাহ তাআলা তিন ব্যক্তির সাথে কথা তো বলবেনই না বরং তাদের দিকে তাকিয়েও দেখবেন না। এমনকি তিনি তাদের গোনাহ থেকে পবিত্র করবেন না  বরং তাদের জন্য রয়েছে কষ্টদায়ক শাস্তি। আমি জিজ্ঞেস করলাম, তারা কারা? তাহলে তো এরা ধ্বংসপ্রাপ্ত;  তাদের বাঁচার কোনো রাস্তা নেই। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাহি ওয়া সাল্লাম এ কথাগুলো তিনবার বলেছেন। তারা হলো,

যে ব্যক্তি টাখনুর নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পরে।

যে ব্যক্তি মিথ্যা কসম খেয়ে ব্যবসার পণ্য বিক্রি করে।

যে ব্যক্তি কারো উপকার করে আবার খোটা দেয়। (মুসলিম, তিরমিজি)

উল্লিখিত হাদিস ছাড়াও বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহ টাখনুর নিচে কাপড় পরিধান করার ব্যাপারে আলাদাভাবে হাদিস বর্ণনা করেছেন। টাখনুর নিচে কাপড় পরিধানকারীর শাস্তি কি হবে তা জানিয়ে দিয়েছেন।

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত হাদিসে বিশ্বনবি বলেন, ‘লুঙ্গির যে অংশ টাখনুর নিচে থাকবে তা আগুনে জলবে।’ (বুখারি)

টাখনুর নিচে কাপড় পরিধানকারীর শাস্তি বর্ণনার কারণ প্রসঙ্গে বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘টাখনুর নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পড়ার ব্যাপারে (তোমরা) সাবধান হও। কারণ, তা অহংকারের অন্তর্ভুক্ত। আর আল্লাহ অহংকার করাকে পছন্দ করেন না। (আবু দাউদ, সিলসিলা সহিহা)

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/বিএনকে