যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বকাপ স্বপ্ন কেড়ে নিল ভুতুড়ে গোল!

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে কনক্যাকাফ অঞ্চলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগোর কাছে হেরেছে ২-১ গোলে। এরপরও গ্রুপের অন্যান্য ম্যাচের ফলাফল যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে গেলে তারা বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়ে যেত। কিন্তু তাদের ভাগ্য হেরে গেল পানামার কাছে। নির্দিষ্ট করে বলতে গেলে একটি ভুতুড়ে গোলের কাছে।

পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় দল হিসেবে শেষ ম্যাচ খেলতে নামে যুক্তরাষ্ট্র। ত্রিনিদাদের সাথে হেরে যখন তারা মাঠ ছাড়ছে তখন তারা তালিকার পঞ্চম দল। কারণ কোস্টারিকার বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতে পানামা দখল করেছে তাদের জায়গাটি। ফলে পানামা বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেয়েছে।

কিন্তু এখন বিতর্ক তাদের একটি গোল নিয়ে। কোস্টারিকার সাথে এক গোলে পিছিয়ে ছিল পানামা। ৫২ মিনিটে পাওয়া একটি কর্নার থেকে গোল করার চেষ্টা করেন পানামার ডিফেন্ডার রোমান টোরেস। কোস্টারিকার স্ট্রাইকার ব্লাস পেরেজ বলটি গোললাইনের উপর থেকে ফেরানোর চেষ্টা করেন এবং ডিফেন্ডার রোনাল্ড মাটারিট্টা বলটি ক্লিয়ার করেন। রেফারি ওয়াল্টার লোপেজ বিতর্কিত এই গোলের সিদ্ধান্ত দেন। ফলে ভুতুড়ে গোলে ম্যাচে ফেরে পানামা।

এরপর ৮৭ মিনিটে আরেকটি গোল করে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা। সাথে নিশ্চিত করে বিশ্বকাপও। একটি ভুতুড়ে গোলই শেষ করে দিল যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বকাপ স্বপ্ন। ১৯৮৬ সালের পর প্রথমবারের মত এবার তারা মূলপর্বে খেলছে না।

তবে কনক্যাকাফের নিয়ম অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের সুযোগ আছে গোলটির বিরুদ্ধে আপিল করার। কিন্তু দলটির প্রেস কর্মকর্তা মাইকেল ক্যামারম্যানের মতে, রেফারির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। যুক্তরাষ্ট্র সম্ভবত কোন আপিলের সুযোগ পাবে না।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৫ ঘণ্টা, ১২ অক্টোবর ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসএফ

SHARE