বর্তমানে বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যা নেই: ড. আব্দুল মোমেন

বর্তমানে বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যা নেই ড. আব্দুল মোমেন
ঢাকা সফররত জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেটের সঙ্গে বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন - সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশে অতীতে বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হলেও বর্তমানে নেই বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন মন্তব্য করেছেন। তারপরও বিচারবর্হিভূত কোনো হত্যার তথ্য পেলে সরকার তা তদন্ত করবে বলে জানান তিনি।

গতকাল রোববার (১৪ আগস্ট) ঢাকা সফররত জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেটের সঙ্গে বৈঠক শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায়।

আবদুল মোমেন বলেন, বিচারবর্হিভূত হত্যার বিষয়টি আমরা নিজে থেকে বলেছি। এমন বলা হয়েছে যে, কিছু লোককে কিলিং করা হয়েছে। আমাদের এখানে আগে হতো ২০০০, ২০০৩ ওই সময়ে।

বৈঠকের বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন জানান, কিছু কিছু লোক নাকি বলেছে যে, ৭৬ জন লোক গত ১০ বছরে নিখোঁজ হয়ে গেছে। তারা বলেছে, সরকার নাকি নিখোঁজ করেছে। ৭৬ জনের মধ্যে আবার ১০ জনকে দেখা যায় পাওয়া গেছে। বাকিগুলো আমরা ঠিক জানি না। পরিবার কোনো তথ্য দেয় না। পরিবারকে বলা হয়, তারা ভয়ে আর কোনো তথ্য দেয় না। আমরা জানি না তারা কোথায় গেছেন।

গতকাল রোববার (১৪ আগস্ট) সকালে ১০টা ২০ মিনিটে চার দিনের সফরে ঢাকায় আসেন মিশেল ব্যাচেলেট। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

সফরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গের সাক্ষাৎ করার কথা রয়েছে তার।

মিশেল ব্যাচেলেট সফরে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিবিজড়িত জাদুঘর পরিদর্শন করা ছাড়াও দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধি এবং কক্সবাজারের একাধিক রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করে সরেজমিনে মানবাধিকার পরিস্থিতি দেখবেন।