হাটে জোর করে গরু নামাতে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর হামলা

হাটে জোর করে গরু নামাতে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর হামলা
গরু নামানোর চেষ্টা - প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি পশুর হাটে জোর করে গরু নামাতে বাধা দেয়ায় ইজারাদারের লোকজন পুলিশের উপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করেছে। এতে আহত হয়েছেন পুলিশের একজন উপ-পরিদর্শক (এসআই)।

আজ বুধবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে ফতুল্লার ভূইগড় এলাকায় মানিক চাঁনের হাটের সামনে লিংক রোডে। অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে তাৎক্ষণিক ৩ জনকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো-সুজন সরদার, অপু কাজী ও সোহেল। আহত পুলিশ অফিসার এসআই মিজানুর রহমান এঘটনায় বাদী হয়ে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে ৩৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, বুধবার ভোর ৪টায় লিংক রোড দিয়ে নারায়ণগঞ্জে ট্রাক যোগে গরু আসার পথে মানিক চাঁনের লোকজন তাদের আটকিয়ে জোর করে গরু হাটে নামানোর চেষ্টা করে। জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ নাম্বার থেকে এ বিষয়ে সংবাদ পেয়ে এসআই মিজানুর রহমান ফোর্স নিয়ে সেখানে গিয়ে ট্রাক থেকে গরু নামাতে বাধা দেন।

এতে মানিক চাঁনের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশের উপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় ইটের আঘাতে এসআই মিজানুর রহমান আহত হন। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে এসআই মিজানুর রহমানকে উদ্ধার করে ঘটনাস্থল থেকে লাঠি ও ইটের টুকরাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, ফতুল্লার সাইনবোর্ড শান্তিধারা ও ভূইগড় এলাকায় জনসাধারনের চলাচলের সড়কে প্রতিবছর পৃথক দুটি হাট বসায় স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এবিষয়ে সম্প্রতি তদন্ত করে ফতুল্লা সার্কেলের এসিলেন্ড প্রভাবশালীদের হাটের আবেদনে আপত্তি জানান। এরপরও রহস্যজনক কারণে তাদের হাটের ইজারা দিয়েছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার। ইজারা পেয়ে প্রভাবশালীরা মানুষের বাসা বাড়ি থেকে বের হওয়ার গেইটেও গরু বেঁধে রাখে বিক্রির জন্য। কেউ প্রতিবাদ করলেই বাড়ির গেইটে তালা দেয়ার হুমকি দেয় ইজারাদারের সন্ত্রাসীরা।

গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, শান্তিধারা ও ভূইগড় এলাকায় কোনো মাঠ নেই। তারা বিশাল সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বাসা বাড়ির গেইট বন্ধ করে হাট বসায়। এতে এলাকাবাসীর চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। এদুটি হাটের ইজারা না দিতে গোয়ান্দা সংস্থার পক্ষ থেকেও আপত্তি জানানো হয়।