‘আমার জীবন নষ্ট করে দিয়েছে বাবুল’

চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছেন তানিয়া আক্তার রেলেনা (২০) নামের এক তরুণী। মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনা ঘটেছে মৌলভীবাজারের সদর উপজেলায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশের এসআই বিকাশ বলেন, এটি আত্মহত্যা। তরুণীর মরদেহের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। সেখানে বাবুল নামে একজনকে মৃত্যুর জন্য দায়ী করেছেন তরুণী। তদন্তের পর বিষয়টি পরিষ্কারভাবে জানা যাবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বাবুল নামের এক ছেলের সঙ্গে তানিয়ার দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বাবুলের কাছে প্রতারিত হয়ে আত্মহত্যা করেছেন তানিয়া।

জানা যায়, ওই তরুণীর মরদেহের পাশে একটি চিরকুট পেয়েছে পুলিশ। আত্মহত্যার জন্য চিরকুটে এক যুবককে দায়ী করেছেন তিনি। মৃত তানিয়া আক্তার সদর উপজেলায় নাজিরাবাদ ইউনিয়নের আগনসী গ্রামের মৃত আহাদ মিয়ার মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে বাড়ির ছাদের গ্রিলের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে তানিয়া। পরে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে মৌলভীবাজার হাসপাতালে নিয়ে যায় স্বজনরা। সেখানে নিলে চিকিৎসক জানান, আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

মরদেহের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। চিরকুটে লিখা রয়েছে, ‘আমার জীবন নষ্ট করে দিয়েছে বাবুল। আর কেউ নয়, আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী সে। আমার মোবাইলে তার অপকর্মের সব রেকর্ড আছে।’

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কে