বিশ্বের নিরাপদ এয়ারলাইনসের তালিকায় বিমান বাংলাদেশ

বিশ্বের নিরাপদ এয়ারলাইনসে তালিকায় স্থান পেয়েছে বাংলাদেশ বিমান। যাত্রী নিরাপত্তা, সেবা ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে সাত তারকার মধ্যে পাঁচ তারকা পেয়েছে বিমান। 

আজ রোববার  অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক এয়ারলাইন রেটিংস ডটকমের তালিকা থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সংস্থাটি নির্ভরযোগ্য ও নিরাপদ, রেটিংস নিয়ে প্রতিবছর তথ্য প্রকাশ করে থাকে।

এয়ারলাইন রেটিংস ডটকমের জরিপে কয়েকটি বিষয়ের দিকে খেয়াল রাখা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে এয়ারলাইনটি আইয়াটা অপারেশনাল সেফটি অডিট (আইওএসএ) সনদপ্রাপ্ত কিনা, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) কালো তালিকাভুক্ত কিনা, এয়ারলাইনটির দুর্ঘটনার হার, ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) অনুমোদন আছে কিনা এবং আইকাওয়ের আটটি নিরাপত্তা প্যারামিটার সম্পন্ন করে কিনা। 

এই মানদণ্ডগুলোর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ আইওএসএ সনদপ্রাপ্ত হওয়ায় তিন তারকা, ইইউ কালো তালিকাভুক্ত না হওয়ায় এক তারকা এবং গত ১০ বছরে কোনো দুর্ঘটনা না ঘটায় এক তারকা পেয়েছে। 

অপরদিকে এফএএ অনুমোদন না থাকা ও আইকাওয়ের নিরাপত্তা প্যারামিটার সম্পন্ন না করায় একটি করে মোট দুটি তারকা হারিয়েছে বিমান।  

২০১৯ সালের সবচেয়ে নিরাপদ এয়ারলাইনসের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে-এয়ার নিউজিল্যান্ড, আলাস্কা এয়ারলাইনস, অল নিপ্পন এয়ারলাইনস, আমেরিকান এয়ারলাইনস, অস্ট্রেলিয়ান এয়ারলাইনস, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ, ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারওয়েজ, এমিরাটস, ইভিএ এয়ার, ফিনএয়ার, হাওয়াইয়ান এয়ারলাইনস, কেএলএম, লুফথানসা, কোয়ানতাস, কাতার, স্ক্যান্ডেনেভিয়ান এয়ারলাইন সিস্টেম, সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস, সুইস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনস ও আটলান্টিক ও অস্ট্রেলিয়া অঞ্চলের ভার্জিন গ্রুপ অব এয়ারলাইনস। 

অন্যদিকে এক ও দুই তারকা পেয়ে তালিকার সবচেয়ে কম নিরাপদ এয়ারলাইনসের মধ্যে রয়েছে- আরিয়ানা আফগান এয়ারলাইনস, ব্লুউইং এয়ারলাইনস, ক্যাম এয়ার ও ট্রিগানা এয়ার সার্ভিস। 

দেশভিত্তিক নিরাপদ এয়ারলাইন সেবা দিয়ে শীর্ষে রয়েছে-রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স, জাপান, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভিয়েতনাম, গ্রিস, অস্ট্রেলিয়া, হাঙ্গেরি, নরওয়ে, আয়ারল্যান্ড, স্পেন, মেক্সিকো, উজবেকস্তান, দক্ষিণ কোরিয়া, নেদারল্যান্ড, ইকুয়েডর, রোমানিয়া, সুইজারল্যান্ড, তুরস্ক, দক্ষিণ আফ্রিকা, চেক রিপাবলিক, লাটভিয়া, চিলি, সিঙ্গাপুর, সৌদি আরব, ডেনমার্ক, পর্তুগাল, জর্দান, কাতার, ফিলিপাইন, ব্রাজিল, মোঙ্গলিয়া, তাইওয়ান, সুইডেন, ইরান, জার্মানি, পোল্যান্ড, নেদারল্যান্ড, ইসরায়েল, হংকং, বাহরাইন, জর্জিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফ্রিন্ডল্যান্ড, আরব আমিরাত, ক্রোয়েশিয়া, ক্রিনিদাদ ও টোবাকো, বুলগেরিয়া, বেলজিয়াম, ইতালি, নাইজেরিয়া, আর্জেন্টিনা, নিউজিল্যান্ড, মাদাগাস্কার ও ম্যাকাউয়ের বিমান সংস্থাগুলো।  

বাংলাদেশের প্রতিবেশি দেশ ভারতের এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া ও স্পাইস জেট পেয়েছে তিন তারকা, গোএয়ার, ইন্ডিগো, জেট এয়ার, জেট কানেক্ট পেয়েছে ছয় তারকা। আর পাকিস্তানের এয়ার ব্লু চার তারকা পেয়েছে।  অপরদিকে বাংলাদেশের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নভোএয়ার পেয়েছে তিন তারকা।

এয়ারলাইন রেটিংস ডটকম প্রতিবছর বিশ্বের ৪০৫টি বিমান সংস্থার তথ্য ব্যাপকভাবে বিশ্লেষণের মাধ্যমে নিরাপদ এয়ারলাইনসের তালিকা তৈরি করে।  ২০১৩ সাল থেকে এই তালিকা তৈরি করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। 

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিএস