পুরুষের নিতম্ব ‘ছুঁয়ে’ জেলে ব্রিটিশ ইলেক্ট্রিশিয়ান

সংযুক্ত আরব আমিরাতেই দুবাইয়ে একটি পানশালায় এক ব্যক্তির পশ্চাদ্দেশ বা নিতম্ব স্পর্শ করার অভিযোগে যুক্তরাজ্যের এক নাগরিকের তিন মাসের কারাদণ্ড হয়েছে।

ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্কটল্যান্ডের স্টার্লিং শহরের বাসিন্দা জেমি হ্যারনকে এ ঘটনায় গত জুলাইয়ে গ্রেফতার করা হয়। যদিও নিতম্ব স্পর্শের বিষয়ে হ্যারনের দাবি- লোকারণ্য পানশালায় হাতের পানীয় পড়ে যাওয়া ঠেকাতে গিয়েই তার হাত লেগে যায় ব্যবসায়ী ইমাদ তাবাজার নিতম্বে।

এতে আরও বলা হয়, হ্যারনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা আরব ব্যবসায়ী তাবাজা পরে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন। তবে তা সত্ত্বেও দুবাইয়ের সরকারি কৌঁসুলিরা হ্যারনের বিরুদ্ধে মামলাটি চালিয়ে যান।

ঘটনার সময় দুবাইয়ে দু’দিনের যাত্রাবিরতিতে থাকা ২৭ বছর বয়সী ইলেকট্রিশিয়ান জেমি হ্যারন আফগানিস্তানে কর্মরত ছিলেন।

তবে প্রকাশ্যে অশ্লীলতার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর হ্যারন তার চাকরি হারান এবং এ ঘটনায় তার তিন বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে বলে সে সময় তাকে জানানো হয়।

ডিটেইনড ইন দুবাই (ডিআইডি) বা দুবাইয়ে আটক নামে একটি ক্যাম্পেইন গ্রুপ জানায়, রোববার হ্যারনকে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। তবে তার আইনজীবীরা আপিল করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

হ্যারন বর্তমানে কারাবন্দি নয়, এমনকি তিনি আদালতেও হাজির হননি। আদালতে রায় ঘোষণার দিন তার পক্ষে তার আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন এবং আপিল করার জন্য তিনি দুই সপ্তাহ সময় পাবেন।

ক্যাম্পেইন গ্রুপটি জানায়, এ ঘটনায় জেমি হ্যারন অত্যন্ত ক্ষুব্ধ ও হতাশ এবং এরপর কী হবে তা নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন।

এর আগে পানশালায় জুলাইয়ের সেই একই দিনে এক ব্যক্তির সঙ্গে রূঢ় আচরণ এবং মদ্যপানের অভিযোগে আদালতের শুনানিতে হ্যারন উপস্থিত হতে ব্যর্থ হলে তার অনুপস্থিতিতেই আদালত তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৭ ঘণ্টা, ২৩ অক্টোবর ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসএফ