দুধ না খাওয়ায় শিশুকে ঘরের বাইরে রেখে লাশ বানালেন বাবা

তিন বছর বয়সী এক শিশু কন্যাকে খুঁজে না পাওয়ার দুই সপ্তাহ পর তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের বরাতে ডেইলি মিরর জানায়, দুধ না খাওয়ায় গত ৭ অক্টোবর ঘর থেকে বাইরে একটি গাছের নিচে রেখে আসা হয়েছিল ওই শিশুকে। রাত ৩টার দিকে এই জঘন্য কাজটি করেন মেয়েটির বাবা!

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যের রিচার্ডসন এলাকায় এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটে। রিচার্ডসন পুলিশ ৩৭ বছর বয়সী বাবা ওয়েসলি ম্যাথুজকে আটক করেছে। পুলিশের কাছে তিনি স্বীকার করেছেন যে, গত ৭ অক্টোবর দুধ না খাওয়ায় মেয়েকে শাসন করার জন্য ঘর থেকে বের করে দেন। বাড়ির পাশে একটি গাছের নিচে রেখে আসেন শেরিন ম্যাথুজ নামে সেই তিন বছর বয়সী বাচ্চা মেয়েটিকে।

১৫ মিনিট পর সেখানে গিয়ে মেয়েটিকে আর দেখেনি বাবা। সাথে সাথে পুলিশকে না জানিয়ে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর পুলিশকে নিখোঁজের বিষয়টি অবহিত করেন সেই বাবা।

পুলিশের আশঙ্কা সেখান থেকে শিশুটি অপহরণের শিকার হতে পারে। নিখোঁজের প্রায় দুই সপ্তাহ পর প্রায় মাইল খানেক দূর থেকে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এখনো ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়নি, তবে লাশটি শেরিন ম্যাথুজের নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তার মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ।

বাবা ওয়েসলি ম্যাথুজের বিরুদ্ধে শিশুকে জীবন বিপন্নকর পরিস্থিতে ফেলার অভিযোগ আনা হয়েছে এবং শিগগিরই আদালতে উপস্থাপনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৬ ঘণ্টা, ২৩ অক্টোবর ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/সাদ