আবদুল কাদের মির্জার ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে তোলপাড়

পুরানো ছবি

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ফেসবুকে একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে ক্ষিপ্ত হয়েছেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। গতকাল বেলা ১২টা ২৯ মিনিটে তিনি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দেন- ‘জুমা নামাজের সময় বায়তুল মোকাররম মসজিদে বোমা মেরে উড়িয়ে দিলে দেশে দুর্নীতিবাজের সংখ্যা কমে যাবে।’

আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা স্ট্যাটাসের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল তার ফেসবুকে অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, আ কা মির্জা মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং অনতিবিলম্বে গ্রেফতারের জোর দাবি জানাচ্ছি।

কাদের মির্জার ভাগনে ফখরুল ইসলাম রাহাত তার ফেসবুকে লেখেন- দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের আবেগের জায়গা, জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিলেন আ কা মির্জা। আব্দুল কাদের মির্জাকে দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানাচ্ছি। উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম ফয়সল লিখেন, সুচিকিৎসা প্রয়োজন…..।

দেখা যায় স্ট্যটাসটি দেওয়ার ১৫ মিনিটের মাথায় তা হিডেন করে রাখা হয়।

এ বিষয়ে আবদুল কাদের মির্জার ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কথা বলেননি। তবে স্বপন নামে একজন ফোন রিসিভ করে নিজেকে তাঁর সহকারী পরিচয় দিয়ে, অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে বলে জানান।