Home রাজনীতি 'খালেদার জামিনে আবারও প্রমাণ হলো আদালত স্বাধীন’

‘খালেদার জামিনে আবারও প্রমাণ হলো আদালত স্বাধীন’

- Advertisement -

মানহানি ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘তার দুটি মামলায় জামিন পাওয়ায় আবারও প্রমাণিত হলো, আদালত স্বাধীনভাবে কাজ করছে।বাংলাদেশের আদালত সব সময়ই স্বাধীন। শেখ হাসিনার সরকার কখনোই বিচার বিভাগে হস্তক্ষেপ করে না। খালেদা জিয়ার ব্যাপারেও আদালত স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। এ জামিনের মধ্য দিয়ে আবারও প্রমাণ হলো, আদালত স্বাধীন।’

মঙ্গলবার রাজধানীর কাওলায় ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের মে মাসের কাজের প্রতিবেদন ও সর্বশেষ তথ্য সম্পর্কে ব্রিফিং শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন কাদের।

- Advertisement -

এসময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে কাদের বলেন, ‘ফখরুল সাহেব শপথ না নিয়ে মনে মনে আফসোস করছেন। তিনি যোগ দিলেন না, সতীর্থরা যোগ দিলেন। যারা সংসদে যোগ দিয়েছেন, তারা তো কথা বলছেন। ফখরুল সাহেব কেন দ্বৈত নীতি গ্রহণ করলেন? সরকারবিরোধী কৌশলের জন্য তিনি (ফখরুল) শপথ নেননি, এ বক্তব্য হাস্যকর।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তারা (বিএনপি নেতারা) শুধু বিরোধিতার জন্য বলেন, আদালত স্বাধীন নয়। তার (খালেদা) জন্য দলীয়ভাবে কিছু করতে ব্যর্থ হয়ে সরকারের ওপর দোষ চাপায়।’

খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন কি-না? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটাও আদালতের ব্যাপার। মামলা তো অনেকগুলো। সব মামলায় জামিন পেলে আদালত মুক্তি দেবেন। আদালত নির্দেশ দিলে সরকার কাউকে জেলে রাখতে পারে না।’

‘বগুড়ার নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার, বিরোধী দলকে ফেল করানোর চক্রান্ত’- বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘অতীতে ইভিএম যেখানে ব্যবহার হয়েছে, সেখানেই বিরোধী দলই সুবিধা পেয়েছে। তারাই জয়ী হয়েছে। বগুড়ার নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে।’

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর সরকার পতনের হুংকারের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এ রঙিন স্বপ্ন কখনো সফল হবে না। বিনা মেঘে গর্জন হয় না। মেঘ তো সৃষ্টি করতে হবে। আষাঢ় মাস তর্জন-গর্জনের মাস। তাই তারাও গর্জন করছে। ’

লেটেস্টবিডিনিউজ/কেএস

- Advertisement -