ন্যাড়া হলেন ওয়ার্নার, চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন কোহলি-স্মিথকে

ছবিঃ সংগৃহীত

আতঙ্কের নাম COVID-19। সংকটে দেশের স্বাস্থ্য পরিষেবা। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। অস্ট্রেলিয়ায় সংখ্যাটা ৪,৫০০ ছাড়িয়েছে ইতিমধ্যেই। এমন কঠিন সময় এক অসম লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসক থেকে অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীরা। আর তাদের প্রতি সম্মান জানিয়েই মুন্ডিতমস্তক হলেন অজি মারকুটে ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার।

সোমবার (মার্চ ৩১) ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে মাথা ন্যাড়া করার ভিডিও পোস্ট করেন ওয়ার্নার। বর্তমানে করোনা থেকে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কাজ করে যাচ্ছেন অনেক ডাক্তার। পাশাপাশি এ মরণঘাতি ভাইরাসকে প্রতিরোধে সচেতনতামূলক কাজ করছেন নিরাপত্তা বাহিনী। তাদের প্রতি সম্মান জানানোর জন্যই ৩৩ বছর বয়সী অজি ওপেনার নিজের মাথার চুল নিজেই কামিয়ে ফেলেছেন।

এখানেই শেষ নয়। অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্যকর্মীদের সম্মান জানিয়ে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও একই কাজের জন্য চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন ওয়ার্নার। একইসঙ্গে ওয়ার্নারের চ্যালেঞ্জ পৌঁছে গেল সতীর্থ স্টিভ স্মিথ, মার্কাস স্টোইনিস, অ্যাডাম জাম্পাদের কাছেও। মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) ইনস্টাগ্রামে একটি টাইম ল্যাপ্স ভিডিও শেয়ার করেন ওয়ার্নার। যেখানে দেখা যাচ্ছে ঘরে বসেই ট্রিমার চালিয়ে মাথা ন্যাড়া হলেন তিনি।

ক্যাপশন হিসেবে অজি ব্যাটসম্যান লেখেন, ‘করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যারা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের কথা ভেবে মাথার চুল কামিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলাম।’ প্রসঙ্গত, চলতি মাসের ১১ তারিখ নোভেল করোনাভাইরাসকে ‘বিশ্ব মহামারী’ ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এখনও পর্যন্ত মারণ ভাইরাস অস্ট্রেলিয়ায় প্রাণ কেড়েছে ১৯ জন মানুষের। গতকাল মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের প্রতিবেদন তেমনটাই জানাচ্ছে।

করোনা ভাইরাস নিয়ে এদিন এক বার্তা দেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন। সেখানে অস্ট্রেলিয়ার আসন্ন বাংলাদেশ সফরকে কার্যত অনিশ্চিত দাবি করেছেন পেইন। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে তিনি জানান, ‘পরিস্থিতি যা তাতে এটা বুঝতে আইনস্টাইন হওয়ার প্রয়োজন নেই। তবে আমরা নিশ্চিত নই যে সফরটি বাতিল হবে নাকি পিছিয়ে যাবে।’ ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে আপাতত অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহে ১০ ম্যাচে ২৯৬ পয়েন্ট। শীর্ষে থাকা টিম ইন্ডিয়ার সংগ্রহ ৯ ম্যাচে ৩৬০ পয়েন্ট।