কোহলির কাছে পরিবার বড় নাকি দেশ বড়?

anushka

মহামারী করোনার প্রভাবে অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে ক্রিকেট বিশ্ব। বহু কাঠখড় পুড়িয়ে, একের পর এক শর্ত দিয়ে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাচ্ছে ভারত। এই দুই দেশের খেলা মানেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কারি কারি টাকা ঢুকবে। করোনায় লোকসান অনেকটাই পুষিয়ে নিতে পারবে তারা।

তবে এই সফরের আনন্দ অনেকটাই ফিকে হয়ে গেছে বিরাট কোহলি ছুটি নেওয়ায়। সন্তানসম্ভবা স্ত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকতে পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে সিরিজের মাঝপথেই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। এ নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

ভারতের কিছু অতি সমালোচকেরা বলছেন যে, কোহলির কাছে দেশের চেয়ে পরিবারই বড় হয়ে গেছে! পুরো অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট অপেক্ষায় ছিল স্মিথ বনাম কোহলির লড়াই দেখতে। কিন্তু একটি টেস্ট খেলেই দেশে ফেরার বিমান ধরবেন কোহলি। এই খবর অজিদের অবশ্যই খুশি হওয়ার কথা। তাদের সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষ সরে গেছে। তবে অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার কোহলির সিদ্ধান্তের পক্ষেই রায় দিয়েছেন, ‘কোহলি যে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এ জন্য তার প্রতি অনেক সম্মান জানাই। সেও আমাদের মতো মানুষ।’

ল্যাঙ্গার আরও বলেন, ‘আমাকে যদি বলা হতো এ নিয়ে আমার কোনো খেলোয়াড়কে পরামর্শ দাও, আমি অবশ্যই বলতাম এমন সময় স্ত্রীর পাশে থাকতে। কখনোই নিজের সন্তানের জন্মের সময়টা মিস করা উচিত না। সারা জীবনে আপনি অনেক অসাধারণ কাজ করবেন, আর সন্তান জন্মদান হলো ওই কাজগুলোর মধ্যে একটি। কোহলির অনুপস্থিতি অবশ্যই সিরিজের ফলাফলে প্রভাব ফেলবে। তাই বলে আমাদের গা ছাড়া ভাব দেখানো যাবে না।’