ক্রিকেট ‘সমঝোতার আশ্বাসে’ সানির অপেক্ষায় নাসরিনের পরিবার

‘সমঝোতার আশ্বাসে’ সানির অপেক্ষায় নাসরিনের পরিবার

জাতীয় ক্রিকেট দলের বাঁ হাতি স্পিনার আরাফাত সানির দেওয়া সমঝোতার আশ্বাসে এখনো তার বিরুদ্ধে কোনো আইনি প্রক্রিয়ায় যায়নি আত্মহত্যার চেষ্টা করা তার স্ত্রী নাসরিন সুলতানার পরিবার। তবে সমঝোতার কথা বললেও হাসপাতালে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেননি সানি।

বৃহস্পতিবার রাতে সানির সঙ্গে ঝগড়ার জের ধরে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে নাসরিন সুলতানা। পরে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখন তিনি বিপদমুক্ত। তবে তাকে আরো ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। জানিয়েছেন, পরিবারের সদস্যরা।

এ সময় নাসরিনের পরিবারের সদস্যরা জানান, সানির সঙ্গে কথা হয়েছে, ওর আজ (শনিবার) আসার কথা, শুক্রবার রাতে সে বলেছে সমঝোতা করবে। তাই আমরা আইনি প্রক্রিয়ায় যায় নি।

নাসরিনের মা রওশনা বেগম বলেন, শুক্রবার রাত আনুমানিক ১টার দিকে নাসরিনের জ্ঞান ফিরেছে। এখন তাকে আইসিইউ থেকে ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। শারীরিকভাবে দুর্বল থাকায় এখন স্যালাইন দেওয়া হয়েছে।

থানায় কোনো সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, গতকাল রাতে আমরা জিডি করার জন্য গিয়েছিলাম, ডিউটি অফিসার সানির সঙ্গে ফোনে কথা বলে পরে আমাদের ফোন করে জানায় শনিবার সকালে হাসাপাতালে সে আসবে, তার জন্য অপেক্ষা করতে, যদি সে না আসে তবে যেন আমরা জিডি করি। ওর আশ্বাসে আমরা কোনো প্রকার আইনি প্রক্রিয়ায় না গিয়েই থানা থেকে ফিরে আসি।

ক্ষোভের সুরে নাসরিনের মা বলেন, এখন সকাল গড়িয়ে দুপুর হয়ে গেল এখনো সানি আসেনি। আমরা সন্ধ্যা পর্যন্ত অপেক্ষা করব ও না আসলে আইনি প্রক্রিয়া গ্রহণ করব।

এমন কি ঘটেছিল বৃহস্পতিবার রাতে যাতে আত্মঘাতী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় নাসরিন- জানতে চাইলে রওশনা বেগম বলেন, প্রায়ই ঝগড়া হতো সানির সঙ্গে। ওই দিন বেশি মাত্রায় ঝগড়া হয়। হঠাৎ হঠাৎ বাসায় আসত সানি, আমরা যদি তাকে জিজ্ঞেস করতাম বিয়ে করছো এখনো মেয়েকে তুলে নিচ্ছ না কেন, ও সব সময়ই সময় চাইত। নাসরিনকে নিয়ে নিজস্ব গাড়িতে করে ঘুরে আবার বাসায় নামিয়ে দিয়ে যেত।

“বৃহস্পতিবার রাতে আমার মেয়ে চল্লিশটি ঘুমের ওষুধ খায়, সকালে উঠে দেখি মেয়ের মরার মতো অবস্থা। দ্রুত আমরা সিএনজিতে করে মোহাম্মদপুরের আল মানার হাসপাতালে নিয়ে যাই, সেখান থেকে তারা রোগীকে বাংলাদেশ মেডিকেলে নিতে বলে, পরে তারাও রোগিকে রাখেনি, বাংলাদেশ মেডিকেলের পরামর্শে আমরা এখানে নিয়ে আসি।”

রওশনা বেগম বলেন, সানি যখন জেলে ছিল আমাদের বলেছিল আমাকে বের করেন আমি দ্রুত নাসরিনকে ঘরে তুলব। সে জেল থেকে বের হলো ঠিকই কিন্তু আমার মেয়েকে এখনো ঘরে তোলার কোনো প্রকার ব্যবস্থা করে নি।

সানির পরিবারের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওর পরিবারের সবাই খারাপ, সানির মা বলে দিছে এই মেয়েকে নিয়ে আমার বাসায় উঠতে পারবে না, তোমাদের ভাড়া বাসায় আলাদা থাকতে হবে।

প্রতিবেদকের সামনেই সানিকে মুঠোফোন থেকে ফোন করে নাসরিনের বাবা মনির হোসেন। ফোনে সানি তার স্ত্রীর খোঁজ নেয় আর বরাবরের মতোই বলে আমি আসতেছি।

ক্ষোভ প্রকাশ করে মনির হোসেন বলেন, আমার মেয়ের জন্য সানির যদি ভালবাসা থাকত তাহলে ঠিকই সে আসত। ওর স্ত্রী হাসপাতালে ওর কোনো খবর নেই। এমনকি হাসাপাতালের খরচের ব্যপারেও আমাদের কিছু বলে নি। আমাদের মেয়েকে তো আর আমরা ফেলে দিতে পারি না।

নাসরিনের বাবা বলেন, আগামী ২৮ তারিখ সানির আগের মামলার একটা তারিখ রয়েছে, এর আগে আমার মেয়ের এই অবস্থা। সানির এখন কোথায় গ্রহণযোগ্যতা নেই। বিসিবির কাছেও সানি নিজেকে নিদোর্ষ প্রমাণ করতে পারে নি, তাই বিসিবি তাকে জাতীয় দলের বাইরে রেখেছে। ও এখন শুধু জাতীয় লিগ খেলে।

যে এই ঘটনার মধ্যমণি, ক্রিকেটার আরাফাত সানি তাকে প্রতিবেদক ফোন দিয়ে নিজের পরিচয় দেবার পর সে ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। এরপর বেশ কয়েকবার ফোনে রিং হলেও ফোন ধরেন নি সানি।

মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জামালউদ্দিন মীর বলেন আমরা জেনেছি সানির স্ত্রী ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল, ভিকটিমের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করতে কেউ এসেছিল কিনা সেটা আমার জানা নেই। সৌজন্যেঃ চ্যানেল আই অনলাইন

বাংলাদেশ সময় : ১৫৫৪ ঘণ্টা, ২৬ আগস্ট, ২০১৭,
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এ

সর্বশেষ

গুজব ঠেকাতে নেতা-কর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ ওবায়দুল কাদেরের

তথ্য-প্রযুক্তির অবাধ প্রবাহ মানুষের পারস্পরিক যোগাযোগ সহজ করেছে। এখন পৃথিবীর এক প্রান্তের মানুষ অন্য প্রান্তের চেনাজানা আপনজন বা অপরিচিত...

একরাতেই ভারতে করোনায় আক্রান্ত ২৩২ জন

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের মরণ থাবায় বেড়েই চলছে মৃত্যুর মিছিল। প্রতিদিন বাড়ছে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিমধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ...

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে কিছু তথ্য এবং আমাদের দেশে করণীয়

সাম্প্রতিক সময়ের আলোচিত বিষয় হচ্ছে নোভেল করোনা ভাইরাস। এ নিয়ে সকলের ভয়-ভীতি এবং জানার আগ্রহের কমতি নেই। তার চেয়েও...

মহামারি করোনা থেকে রক্ষা পেতে বায়তুল মোকাররমে বিশেষ মোনাজাত

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে জুমার নামাজে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন সিনিয়র...

দূষণের ক্ষত সারিয়ে ‘সুস্থ’ হয় উঠছে ওজন স্তর, সজীব হচ্ছে পৃথিবী

করোনার জেরে বিভিন্ন দেশে চলছে লকডাউন। ফলে এক ধাক্কায় অনেকটাই কমেছে বায়ু দূষণের মাত্রা। বিজ্ঞানীদের দাবি, করোনাভাইরাসের লকডাউনের জেরে...

করোনার কারণে সিঙ্গাপুরে কমছে বাড়ির দাম

চীনের উহান থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এ ভাইরাস ইতোমধ্যে ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। বিশ্বব্যাপী...

বিশ্বব্যাপী করোনা ঝুঁকির মধ্যেও, এশিয়ায় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি হবে বাংলাদেশে

করোনার পরিস্থিতির মধ্যেই বাংলাদেশের জন্য একটি সুখবর। চলতি অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি কিছুটা কমে ৭ দশমিক ৮...

আপনার জন্য নির্বাচিত