যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাচ্ছেন আলোচিত সেই ডেইজি সরোয়ার

Daisy Saroar

যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাচ্ছেন নিউইয়র্কে অবস্থানরত পরিবারের সদস্যদের সময় দেওয়ার জন্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের আলোচিত আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী আলেয়া সারোয়ার ডেইজি।

গত শনিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সমর্থিত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম সেন্টুর কাছে পরাজিত হন তিনি। এই পরাজয়ের পর ডেইজি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এখন থেকে নিজের পরিবারকে সময় দেবেন। সেজন্য আসছে এপ্রিলে নিউইর্য়কে পরিবারের কাছে চলে যেতে পারেন।

নির্বাচনে হারলেও জনগণের ভালোবাসা অর্জন করতে পেরেছেন বলেও গণমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের সাবেক এই কাউন্সিলর। তিনি বলেন, আমি জনগণের ভালোবাসা অর্জন করতে পেরেছি। আমি ভালোবেসেছি আমার নেত্রী শেখ হাসিনাকে। ভালোবেসেছি জনগণকে। বিজয়ী হয়ে জনগণের জন্যই কাজ করতে চেয়েছিলাম। পরাজিত হয়ে আমি দুঃখ পাইনি। তবে আমার দুঃখ আওয়ামী লীগকে এই আসনটি দিতে পারিনি।

যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির এই সভাপতি আরও বলেন, ‘আমি আমার নেত্রী শেখ হাসিনার হয়ে জনগণের জন্য কাজ করেছি। আগামীতেও করতে চেয়েছিলাম। আমার সেই ইচ্ছা ছিল। শক্তি ছিল।’

২০১৮ সালের মার্চে ঢাকা সিটিতে ডেইজির মশক নিধনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তখন ডিএনসিসির ফেসবুক পেজে ওই ভিডিও ও ছবি পোস্ট করে লেখা হয় প্যানেল মেয়র আলেয়া সারোয়ার ডেইজির নেতৃত্বে এয়ারপোর্ট এলাকায় মশা নিধনের ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। ভিডিওতে দেখা যায়, একটি গাড়ির ওপরে দাঁড়িয়ে আছেন ডেইজি। আর দু’পাশে দাঁড়িয়ে মশা মারার ফগার মেশিন দিয়ে স্প্রে করছেন দুই কর্মী।