এক কাতলার দাম ৬৩ হাজার ৭শ টাকা!

৬৩ হাজার ৭শ টাকা দামের কাতলা হাতে শামছুল বেপারি - সংগৃহীত ছবি

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় পদ্মা নদীর মাওয়া এলাকায় একটি কাতলা মাছ ধরা পড়েছে। ৪৯ কেজি ওজনের মাছটি গতকাল ভোরে শামছুল বেপারি নামের এক জেলের জালে ধরা পড়ে।

ফরিদপুর সেবা মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সহসভাপতি শামছুল বেপারি। তিনি বলেন, “এই মৌসুমে এবারই প্রথম নদী থেকে এত বড় কাতলা মাছ আমাদের জালে ধরা পড়ল। মাছটি মাওয়া মৎস্য আড়তের মোকলেসুর নামের এক মৎস্য আড়তদারের কাছে ১ হাজার ৩শ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছি ৬৩ হাজার ৭শ টাকায়। মৎস্য শিকারি বলেন, প্রতিদিনের মতো সহযোগীদের নিয়ে রবিবার রাতে পদ্মা নদীতে মাছ শিকারে যান। তারা বেশ কিছুদিন বেকার বসে ছিলেন ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞার কারণে। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর মাছ শিকারে নদীতে নামলেও ইলিশ মাছ ছাড়া আর তেমন কিছুই পাননি। তারা রাত তিনটার দিকে মাওয়া ঘাটের পদ্মা সেতু এলাকায় জাল ফেলেন। অতঃপর একই উপজেলার উজানের এলাকায় গিয়ে জাল ওঠানো শুরু করেন। ভোর চারটার দিকে মাছটি তুলে ফেরিঘাট সংলগ্ন মাওয়া মৎস্য আড়তের যান। নদীতে বড় কাতলা মাছ ধরা পড়ার খবর পেয়ে কয়েকজন বেপারি ছুটে আসেন। কাতলা মাছটি সেই আড়তেই বিক্রি করেন।

আড়তদার মৎস্য ব্যবসায়ী মোকলেসুর রহমান জানান, পরে ৫ হাজার টাকা লাভে ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে মাছটি বিক্রি করেন তারা।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, “নদীতে এখন মাঝে মধ্যে বিড়ল ও বড় মাছ পাওয়া যায়। তবে ৪৯ কেজি ওজনের কাতলা মাছ খুব বেশি ধরা পড়ে না।”