রাণীনগরে গনেশ মূর্তিসহ ৩ পাচারকারী আটক

Raninagar

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলায় প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন কষ্টি পাথরের গনেশ মূর্তিসহ তিন পাচারকারীকে আটক করেছে জয়পুরহাট র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৫) সদস্যরা।

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলার বড়গাছা এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন-রানীনগর উপজেলার ভারনা গ্রামের মহির উদ্দিনের ছেলে রশিদ (৩৫), রাজশাহী জেলার বোয়ালিয়া থানার সাগর পাড়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে ওমর ফারুক (৪৭) ও দুর্গাপুর থানার গোপীনাথপুর গ্রামের ফারুক হোসেন (৫০)।

মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে র‌্যাব-৫ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রানীনগর উপজেলায় বড়গাছা গ্রাম থেকে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ১টি কষ্টিপাথরের মূর্তিসহ তিন পাচারকারীকে আটক করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে মূর্তি পরীক্ষা করার এসিড নজল্স ৬৭টি, হ্যান্ড গ্লোভস ৪টি, ছোট আয়না ১টি, মোবাইল সেট ৪টি, সীমকার্ড ৫টি, মেমোরি কার্ড ১টি এবং নগদ ৪ হাজার ৬৫ টাকা উদ্ধার করা হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, মূর্তি পাচারকারীরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে, তারা দীর্ঘদিন ধরে নওগাঁ, জয়পুরহাট এবং বগুড়া জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন অবৈধভাবে সংগ্রহ করে দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন এলাকায় পাচার করে আসছিল।

পরে তাদের বিরুদ্ধে রাণীনগর থানায় মামলা দায়ের করে উদ্ধারকৃত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনসহ অন্যান্য সামগ্রী থানায় জমা দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।