কালবৈশাখী ঝড়ে গাইবান্ধায় ৫ জনের মৃত্যু

ইন্টারনেট সংগৃহীত ছবি

সুন্দরগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ২ নারীসহ মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। গতকাল রোববার (৪ এপ্রিল) বেলা ৩ টার দিকে গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন উপজেলায় হঠাৎ শুরু হওয়া ঝড়ে ঘরবাড়ি-গাছপালা ভেঙে পড়লে তারা নিহত হন। জেলা প্রশাসক আবদুল মতিন এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত হলেন, পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের মোস্তাফুর গ্রামের গোফফার রহমান এবং ডাকেরপাড়া গ্রামের জাহানারা বেগম। আর সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের দোয়ারা গ্রামের ছোলায়মান মিয়ার স্ত্রী ময়না বেগম (৪০)। অন্য দুই নিহত ব্যক্তির নাম জানা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঝড়ে বিভিন্ন সড়কে ভেঙে পড়া গাছ অপসারণে কাজ করছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তারা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেননি।

এই বিষয়ে জেলা প্রশাসক আবদুল মতিন জানান, “হঠাৎ বয়ে যাওয়া দমকা হাওয়ায় বিভিন্ন জায়গায় বাড়িঘর ও গাছপালা ভেঙে পড়াসহ ধানের জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে। এ ছাড়া বাতাসে গাছ ভেঙে পড়ায় সুন্দরগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলায় ২ নারীসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত প্রত্যেক পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা করা হয়েছে।”