ভুলেও আর দেরি করে ঘুম থেকে উঠবেন না!

সুস্থ থাকতে সঠিক পরিমান ঘুম খুবই প্রয়োজন। সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গেছে, দেরি করে ঘুম থেকে ওঠলে নানা রকম মানসিক ও শারীরিক সমস্যা হতে পারে। গবেষকরা মোট চার ধরনের মানুষের উপর এই গবেষণাটি চালান।

এই চার ধরনের মানুষ হলো যারা প্রতিদিন নিয়মিত সকালে ওঠেন, যারা মাঝে মধ্যে সকালে ওঠেন, যারা মাঝে মধ্যে দেরি করে ঘুমান এবং যারা প্রতি রাতে নিয়মিত রাত জাগেন। এই চারটি বিভাগে থাকা অংশগ্রহণকারীদের বয়স ছিল ৩৮ থেকে ৭৩ বছরের মধ্যে।

গবেষণায় বলা হয়, যে সকল ব্যক্তি নিয়মিত সকালে ঘুম থেকে ওঠেন তার গড় আয়ু রাত জাগা ব্যক্তিদের থেকে সাড়ে ছয় বছর বেশি। তবে এর সঙ্গে ওই ব্যক্তির বয়স, লিঙ্গ, ওজন, আর্থসামাজিক অবস্থা, খাদ্যাভাস, জীবনযাত্রা ইত্যাদি নানা বিষয় জড়িত। এই সব বিষয়গুলো মিলিয়ে দেখা যায় সকালবেলায় যারা ঘুম থেকে ওঠেন, তাদের অকাল মৃত্যুর হার সবচেয়ে কম।

এমন কি রাত জাগার ফলে ৯০ শতাংশ মানুষ বিভিন্ন মানসিক সমস্যার শিকার হন। আর ৩০ শতাংশের হয়ে থাকে ডায়াবেটিস। তবে বিশেষজ্ঞরা ঘুমানোর কিছু নিয়ম সম্পর্কে বলেছে।

শোয়ার জায়গাটা এমন হতে হবে যেখানে সূর্যের আলো সহজেই পৌঁছায় কিন্তু রাতের বেলায় অন্ধকার থাকে।

প্রতিরাতে একটি নির্দিষ্ট সময়ে বিছানায় যাওয়া এবং সেটা যেন খুব দেরিতে না হয়।

ঘুমের সময়ের সঙ্গে কোনো ভাবেই ছাড় দেয়া যাবে না। দিনের কাজ দিনেই শেষ করতে হবে।

ঘুমানোর সময় মোবাইল ও ল্যাপটপকে দূরে সরিয়ে রাখতে হবে।