গুগলে যেসব বিষয় জানতে ভুলেও সার্চ দেবেন না

গুগলে যেসব বিষয় জানতে ভুলেও সার্চ দেবেন না

বর্তমান যুগ হচ্ছে তথ্য প্রযুক্তির যুগ। এ যুগে মানুষ ঘরে থেকে কি না করতে পারে। তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে মানুষের কিছু জানার প্রয়োজন হলেই কারও মুখাপেক্ষী না হয়ে গুগলে সার্চ করে এবং তৎক্ষণাত সার্চকৃত বিষয়বস্তু পেয়ে যায়।

তবে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের গুগল সার্চের মধ্য দিয়েই ফাঁদ পাতে প্রতারকরা। দেখা যায় নিজের প্রয়োজনে সার্চ করতে গিয়ে উল্টো বিপদে পড়েন অনেকে। তাই গুগল সার্চে অন্তত অনেক ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলো।

ব্যাংকিংসংক্রান্ত লিঙ্ক বা ওয়েবসাইট

গুগল সার্চ করে কোনো ব্যাংকের ওয়েবসাইটে ঢোকার আগে সাবধান। ডুপ্লিকেট ভুয়া ওয়েবসাইট থেকে সর্বস্বান্ত হতে পারেন। তাই ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই সরাসরি ওয়েব অ্যাড্রেস টাইপ করে খুলুন। অথবা সেই ব্যাংকেরই তৈরি অ্যাপ ব্যবহার করুন। অনলাইন লেনদেনের সময় থাকুন সতর্ক।

অস্ত্র ও বোমা সম্পর্কে

কীভাবে অস্ত্র কেনা যায়, কীভাবে বোমা বানানো যায়-এসব তথ্য জানতে চেয়ে গুগলে কখনোই সার্চ দেবেন না। কারণ যা সার্চ হয় তা গুগলের এন্ডেও নথিভুক্ত থাকে। তাই যদি তারা এ ধরনের সার্চ হিস্ট্রি দেখে তা সেই আইপি অ্যাড্রেস দেখে পুলিশ বা নিরাপত্তা সংস্থা আপনাকে ট্রেস করতে পারবে।

অ্যাডাল্ট কনটেন্ট

গুগলে গিয়ে প্রাপ্তবয়স্কদের বিনোদন নিয়ে কিছু খুঁজবেন না। কারণ বাংলাদেশে অ্যাডাল্ট কনটেন্ট দেখা নিষিদ্ধ। এ ধরনের ওয়েবসাইট বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি ব্লক করে রেখেছে। তাই এ কনটেন্ট যদি আপনি ভিপিএন দিয়েও খুঁজে বের করে দেখেন তবে আপনার জেল-জরিমানা হতে পারে।

ওষুধ

কোন অসুখ হলে কী ওষুধ খাবেন সেটাও গুগলে খোঁজা উচিত নয়। বিভিন্ন ধরনের ওষুধের বিভিন্ন ধরনের কম্পোজিশন থাকে। যার সাইড অ্যাফেক্ট থাকে। কার শরীরে কী রোগ রয়েছে তা জেনে-বুঝে চিকিৎসকরা ওষুধ দেন। না জেনে-বুঝে ওষুধ খেলে ভালো তো নয় বরং বিপদ হতেই পারে।

ই-মেইল আইডি

গুগল দিয়ে কখনো নিজের ই-মেইল আইডি খোঁজা উচিত নয়। হ্যাকাররা সবসময়ই অপেক্ষায় থাকে, কে কখন ভুল করে। এভাবে নিজের মেইল দিয়ে দিলে হ্যাকররা আপনার গুপ্ত তথ্য সেখান থেকে বের করে নিতে পারেন।

কাস্টমার কেয়ার নম্বর

এ ছাড়া কোনো কাস্টমারের কেয়ার নম্বর কখনো খুঁজবেন না। অনেক ক্ষেত্রেই সেখানে হ্যাকাররা ভুলভাল নম্বর দিয়ে রাখেন। সেই নম্বর দিয়ে ফোন করেন যারা, তারা ক্ষতিগ্রস্ত এমনকি অ্যাকাউন্ট থেকে সর্বস্বান্ত হতেও পারেন।

শেয়ারবাজারসংক্রান্ত তথ্য

গুগলে এ সম্বন্ধে সার্চ করলেই হাজারও ওয়েবসাইট ভরা পরামর্শ পাবেন। কিন্তু নির্দিষ্ট ও নামি কিছু ওয়েবসাইট ছাড়া শেয়ারবাজারসংক্রান্ত বুদ্ধি না নেওয়াই শ্রেয়। একইসঙ্গে বিভিন্ন ভুয়া সংস্থা ‘ট্রেডিং’-এর নাম করে প্রতারণার ফাঁদ পেতে থাকে। তাই এ বিষয়ে গুগল সার্চের ওপর বেশি নির্ভর না করাই ভালো।