‘আমার স্ত্রী-মেয়ের কাছে ওদের দেখতে চাই না’

ন্যাশনাল টিভি চ্যানেলে নারীদের নিয়ে অশালীন ও অপমানজনক মন্তব্য করে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন ক্রিকেটার হার্দিক পাণ্ডে ও লোকেশ রাহুল। ভারতীয় এই দুই ক্রিকেটারের বিতর্কীত মন্তব্য নিয়ে এবার মুখ খুললেন দলটির প্রাক্তন ক্রিকেটার হরভজন সিং।ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজ দলের দুই ক্রিকেটার হার্দিক-লোকেশের চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলেন হরভজন।

তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রী ও কন্যা যদি আমার সঙ্গে ট্র্যাভেল করে তা হলে টিম বাসে এই দুজন থাকলে আমি সেখানে উঠব না।  ওরা কী ভাববে? ওরা মেয়েদের একটি মাত্র দিক থেকে দেখে যেটা সঠিক নয়।’

হরভজন আরও বলেন, ‘আমি বন্ধুদের সঙ্গেও এই সব নিয়ে আলোচনা করি না আর ওরা সেটা গণমাধ্যমে বলে দিল। এখন মানুষ ভাববে হরভজনও এরকম। অনিল কুম্বলে এমন ছিল বা সচিন তেন্ডুলকারও এমন ছিল। কতদিন হল পাণ্ডে দলে এসেছে যে এভাবে ভারতীয় দলের সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে।’হার্দিক ও লোকেশের নির্বাসনের পক্ষেই মত দিয়েছেন হরভজন। 

তিনি বলেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই) একদম ঠিক কাজ করেছে। এটাই প্রত্যাশিত ছিল। আমি অবাক হইনি।’এর আগে বিরাট কোহলি বললেন, ‘ভারতীয় দলের দিক থেকে কোনো অশোভন মন্তব্য আমরা কেউ সমর্থন করব না।  আশা করি, ওরা বুঝতে পেরেছে বিষয়টি কতটা সংবেদনশীল ছিল।’

এদিকে হার্দিক পাণ্ডে ও লোকেশ রাহুল নির্বাসিত হওয়ায় গত শুক্রবারই অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝেই তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তদন্ত।  আপাতত এই দুই ক্রিকেটার কোনো ধরনের ক্রিকেটই খেলতে পারবেন না।সম্প্রতি বলিউড পরিচালক করন জোহরের শো ‘কফি উইথ করন’ এ নারীদের নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ডে হয়েছিল দুই ব্যাটসম্যা‌নকে। এর পর কড়া পদক্ষেপ নেয় বিসিসিআই।

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিএস