Home চট্টগ্রাম বিভাগ কুমিল্লা মেহেদির রং না শুকাতেই যৌতুকের বলি জোনাকি

মেহেদির রং না শুকাতেই যৌতুকের বলি জোনাকি

- Advertisement -

মেহেদির রং শুকাতে না শুকাতেই যৌতুকের বলি হতে হলো নববধু জোনাকি আক্তার (১৯) কে। শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করেছে স্বামী রনিসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

সোমবার (২০ আগস্ট) বেলা ১১টায় কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন এর পিপাসা বেকারির দক্ষিণে পুলিশ আজিজ টাওয়ারের পিছনের এ ঘটনাটি ঘটে।

- Advertisement -

এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘাতক স্বামী রনি (২২) ও শ্বশুর আলাউদ্দিনকে আটক করেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

এ ঘটনায় কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় ৫ জনকে আসামী করে জোনাকির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ৩ মাস আগে কুমিল্লা নগরীর পুলিশ লাইন আজিজ টাওয়ারের পিছনে করুনাময়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উত্তরে সেলিম মিয়ার বাড়িতে পরিচয়হীন রনির সাথে বরুড়া উপজেলার বাশপুর গ্রামের কৃষক হতদরিদ্র খোরশেদ আলমের কন্যা নববধূ জোনাকির বিয়ে হয়। বিয়ে সময় যৌতুক হিসেবে ৬০ হাজার টাকা দেয়ার কথা থাকলেও তাৎক্ষনিক ২০ হাজার টাকা পরিশোধ করে কন্যা পক্ষ। বাকী ৪০ হাজার টাকার জন্য প্রতিনিয়তই জোনাকির উপর নির্যাতন করতো স্বামী রনি। সোমবার (২০ আগস্ট) টাকার জন্য পুনরায় জোনাকিকে চাপ সৃষ্টি করলে সে অপারগতা প্রকাশ করলে ঘাতক স্বামী রনি তাকে শাসরুদ্ধ করে হত্যা করে।

নিহতের বড় বোন জোহরা খাতুন বলেন, ৩ মাস আগে কুমিল্লা নগরীর পুলিশ লাইন এলাকার সেলিম মিয়ার ভাড়াটিয়া আলাউদ্দিনের পুত্র রনি (২২) সাথে জোনাকির পারিবারিক ভাবে বিবাহ সম্পন্ন হয়। বিয়ের সময়ই যৌতুক হিসেবে জামাই ( রনি ) কে ৬০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অভাবের সংসারের মধ্যে রনিকে ২০ হাজার টাকা যৌতুক দিলেও নিদিষ্ট সময়ে বাকী ৪০ হাজার টাকা দেওয়া সম্ভব হয়নি। এ কারণে নববধূর শ্বশুড় আলাউদ্দিন স্বামী ঘাতক রনি জোনাকির উপর অমানুষিক ও পাশবিক নির্যাতন চালাতো।

জোহরা খাতুন আরও বলেন, আমার ছোট বোন জোনাকিকে শাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে তার স্বামী রনি ও শ্বশুর আলাউদ্দিনসহ তার পরিবারের লোকজন।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, জোনাকির গলায়, মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তের দাগ ও আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, জোনাকিকে প্রায়ই নির্যাতন করতো তার শ্বশুড়বাড়ির লোকজন। বাহির থেকে জোনাকির কান্না শোনা যেতে প্রায়ই। তবে রনির প্রভাবের কারণে কেউই প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কুমিল্লা কোতয়ালী থানার পুলিশ পরিদর্শক রিয়াজুল ইসলাম জানান, পুলিশ লাইনে নববধূ হত্যার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, লাশ ময়না তদন্ত করার পর জানা যাবে কে বা কারা হত্যা করেছে। এ ঘটনায় জড়িত স্বামী রনি ও তার বাবা আলাউদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১১৫ ঘণ্টা, ২২ আগস্ট, ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিকে

- Advertisement -