মুষলধারে বৃষ্টির কারণে পৌরসভাসহ শহরের রাস্তায় হাঁটু পানি

মুষলধারে বৃষ্টির কারণে পৌরসভাসহ শহরের রাস্তায় হাঁটু পানি

মুষলধারে বৃষ্টিপাতের কারণে জয়পুরহাট পৌরসভাসহ জেলা শহরের রাস্তাঘাটে ড্রেনেজ ব্যবস্থার ত্রুটি থাকায় এখন এক হাঁটু পানি। দুই দিনের গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিসহ সারা রাত ধরে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। আজ বুধবার ভোর থেকে মুষলধারে বৃষ্টিপাতের কারণে সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি দেখা দিয়েছে শাক-সবজির ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা।

গত ২৪ ঘন্টায় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ৮৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে যা এই মৌসুমে সর্বোচ্চ বলে জানা গেছে। নিম্নচাপের প্রভাবে এই বৃষ্টিপাত বলে জানায় কৃষি বিভাগ।

সদর উপজেলার পারুলিয়া এলাকার সবজি চাষি এন্তাজ আলী বলেন, গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির কারণে এক বিঘা জমিতে লাগানো ফুল কপি ও বাধা কপির বীজ সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে।

গুড়ি গুড়ি ও ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে সবজি ফসলের কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা নিরুপণে কৃষি বিভাগ কাজ করছে বলে জানান জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. শফিকুল ইসলাম।

নিম্নচাপের প্রভাবে দিন, রাত ধরে গুড়ি গুড়ি আবার কখন ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। জেলা শহরের অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ, রাস্তাঘাটে তেমন লোকজনও নাই। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিপাতের কারণে বিশেষ করে রিকশা-ভ্যান চালক ও দিনমজুর শ্রেণীর লোকজন বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। ফলে পরিবারের লোকজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। অধিক বৃষ্টিপাতের ফলে জয়পুরহাট পৌরসভাসহ মাছ বাজার, সদর রাস্তা, গোরস্থান রোড, জানিয়ার বাগান, নতুনহাট, চিত্রাপাড়া, শান্তিনগর ও বিশ্বাসপাড়া এলাকায় রাস্তাঘাটে হাঁটু পানি জমেছে।