তামিম-মিলারদের ব্যর্থতায় পাকিস্তানের কাছে বিশ্ব একাদশের হার

হার দিয়েই স্বাধীনতা কাপের মিশন শুরু করেছে বিশ্ব একাদশ। মঙ্গলবার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে পাকিস্তানের কাছে ২০ রানে হেরেছে ফাফ ডু প্লেসিসের দল। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে পাকিস্তানকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় বিশ্ব একাদশ। ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণভাবেই করে স্বাগতিকরা। বাবর আজম ও আহমেদ শেহজাদের ব্যাটিং নৈপূণ্যে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৭ রানের বিশাল স্কোর সংগ্রহ করে তারা।

পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেন বাবর আজম। এছাড়া আহমেদ শেহজাদ ৩৯ এবং ৩৮ রান করেন শোয়েব মালিক। ১৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন ইমাদ ওয়াসিম। বিশ্ব একাদশের সফল বোলার থিসেরা পেরেরা। ৫১ রানের বিনিময়ে পাকিস্তানের মূল্যবান দুই উইকেট তুলে নেন তিনি। এছাড়া মরনে মরকেল, বেন কাটিং এবং ইমরান তাহির প্রত্যেকেই প্রতিপক্ষের একটি করে উইকেট লাভ করেন।

পাকিস্তানের ছুঁড়ে দেওয়া ১৯৮ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলকে বড় কোন ইনিংস উপহার দিতে পারেননি বিশ্ব একাদশের কোন ব্যাটসম্যানই। বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি তামিম ইকবালের উপর এদিন আলাদাভাবেই নজর রেখেছিলেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা। কিন্তু দেখে শুনে নিজের ইনিংস শুরু করলেও তা বড় করতে পারেননি তিনি। আউট হওয়ার আগে তিন চারের সাহায্যে ১৮ বলে ১৮ রান করেন বাংলাদেশের হার্ড-হিটার এই ওপেনার।

তামিম ইকবালের মতো হাশিম আমলা (২৬), ডেভিড মিলার (৯), গ্র্যান্ট ইলিয়ট (১৪) কিংবা থিসেরা পেরেরাও (১৭) খুব বেশি সুবিধা করতে পারেননি।

বিশ্ব একাদশের হয়ে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসি। তবে শেষ মুহূর্তে ড্যারেন স্যামির অপরাজিত ২৮ রানের সৌজন্যে সাত উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রানের বেশি সংগ্রহ করতে পারেনি বিশ্ব একাদশ। এর ফলে ২০ রানের হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

পাকিস্তানের সোহেল খান, রুমান রাইস এবং শাদাব খান প্রত্যেকেই বিশ্ব একাদশের দুটি করে উইকেট দখল করেন। তবে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন বাবর আজম।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪০ ঘণ্টা, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসপি

SHARE