‘আব্বু ক্রাইম পেট্রোল দেখে আমার সাথে খারাপ কাজ করে’

মাদারীপুর শহরের রকেট বিড়ি এলাকায় জয়নাল বেপারী (৪৩) নামে এক পিতা চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া নিজ মেয়েকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বাদী হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পিতা জয়নাল আত্মগোপন করেছে। ধর্ষিতা শিশুটিকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে বর্তমানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষিতা শিশুটির মা মেয়েকে বাবার কাছে রেখে চিকিৎসার জন্য ঢাকা যায়। এই সুযোগে ঘরে একা পেয়ে গত শুক্রবার(১৪ সেপ্টেম্বর) রাতে শিশুটিকে মুখ চেপে ধর্ষণ করে এবং বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দেয়। পরে চিকিৎসা শেষে শিশুটির মা মাদারীপুর ফিরে আসলে ধর্ষণের বিষয়টি জানতে পারে। এরপর শিশুর মা শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে ধর্ষণের বিষয়টি জানালে তারা ঘটনাটি গোপন রাখার জন্য হুমকি ধামকি দেন। পরে তার আত্মীয় যুবলীগ নেতা সুমন মোল্লার সহযোগীতায় মেয়েকে মাদারীপুর সদর থানায় নিয়ে যায়।

যুবলীগ নেতা সুমন মোল্লা বলেন, শিশুটির পরিবার অনেক গরীব। বিষয়টি আমি জানার পর ওদের থানায় নিয়ে গিয়ে মামলা করার পরামর্শ দেই। পরে সদর থানায় শিশুর মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। আমরা এই পিতার সবোর্চ্চ শাস্তি দাবি করছি যাতে আর কেউ এই ধরনের অপকর্ম করার সাহস না পায়।

ধর্ষণের বিষয় কান্নাজড়িত কন্ঠে শিশুটি বলেন, গত শুক্রবার রাতে আব্বু ক্রাইম পেট্রোল দেখে টিভি বন্ধ করে আমার পাশে ঘুমাতে আসে, পরে আব্বু আমার উপরে উঠে আমাকে চেপে ধরে আমার সাথে খারাপ কাজ করে।

এব্যাপারে মাদারীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) সিরাজুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে। আমরা আসামী জয়নাল বেপারীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করি শিগিরিই গ্রেফতার করতে পারবো।’

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/কে