অবশেষে সৌদি ধনকুবের সঙ্গে রিয়ান্নার ছাড়াছাড়ি

Rihanna and Hassan Jameel

তারকাদের প্রেম বরাবরই আলোচিত বিষয়। তবে তারমানে এই নয় যে তারা কেবল প্রেমই করে বেড়ান। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে সাক্ষ্য-প্রমাণসহ খবর রটেছিল, সৌদি ধনকুবের হাসান জামিলের সঙ্গে প্রেমে মজেছেন মার্কিন সংগীত তারকা রিয়ান্না। ‘ইউএস উইকলি’র প্রতিবেদন অনুসারে, তাঁদের প্রেমের শুরুটা হয়েছিল আরও ছয় মাস আগে, জুন মাসে। ২০১৯ সালের অক্টোবরে খবর বেরোয়, জামিল রিয়ান্নার বিষয়ে খুবই আন্তরিক। তাঁরা দ্রুত একটা সিদ্ধান্তে আসতে চান। এরপর সম্প্রতি জানা গেল, উভয়েই তাঁদের প্রণয়ের ‘যবনিকা’ টেনেছেন।

রিয়ান্না বা জামিল কেউ নিজেদের প্রেমের কথা স্বীকার না করলেও পাপারাজ্জিদের ছবি আর কানাঘুষা থেকে তাঁদের প্রেমের উত্তাপ টের পেতে বাকি ছিল না কারও। অবশেষে ২০১৯ সালের জুন মাসে ‘গোপন’ প্রেম মুখে নেন ‘উই ফাউন্ড লাভ’খ্যাত রিয়ান্না। ফাঁস করে দেন তাঁদের গভীর প্রণয়ের অজানা রহস্য। বলেন, ‘জামিল খুবই রাশভারী একটা লোক। অন্যদিকে আমি মজার আর বন্য। আমাদের এই বৈপরীত্য আমাদের দুজনকে কাছে এনেছিল।’

সেই সাক্ষাৎকারে রিয়ান্না আরও জানিয়েছিলেন, তাই বলে তিনি দ্রুতই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে চান না। তিনি বলেন, ‘কেবল সৃষ্টিকর্তাই জানেন নারীর মন। আমরা পরিকল্পনা করি। আর ওপর থেকে তিনি দেখে মুচকি হাসেন।’

এর পরও গ্রামিজয়ী এই গায়িকা বলেছিলেন, এই মুহূর্তে তিনি জীবনে যেটা সবচেয়ে বেশি চান, তা হলো মা হতে। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরেও খবর বেরোল, রিয়ান্না আর জামিল দুজন দুজনকে খুবই ভালো বোঝেন। তাঁদের বাগদানের গুজবও রটে। এই ‘ওয়ার্ক’ শিল্পীকে এরপর এই সৌদি প্রেমিকের বাহুডোরে দেখা গেছে। আর খবর বেরোয়, শিগগিরই বিয়ে করছেন এই ‘লাভ বার্ড’। তারপর অনেক জল্পনা-কল্পনার পর হঠাৎ-ই এল তাঁদের প্রেমের সর্বশেষ খবর। তাসের ঘরের মতোই ভেঙে গেছে প্রায় তিন বছরের সম্পর্ক।