বিএনপির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় সরকার

কোন হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হবে সে বিষয়ে বিএনপির আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়। বিএনপি রাজি হলে সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। অন্যদিকে বিএনপি বলছে, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে তামাশা করছে সরকার।

বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল সিএমএইচে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানোর জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে মঙ্গলবার। তবে, এর আগে দুপুরে ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা করানোর জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন তার ভাই শামীম ইস্কানদার।

কোন হাসপাতালে চিকিৎসা হবে সে বিষয়ে বিএনপির আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়।

এরই সূত্র ধরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দাবি করেন, খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসার জন্য সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চেয়ে ভালো জায়গা আর নেই। সকালে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন শেষে একথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সিএমএইচ হচ্ছে দেশের সবচেয়ে ভালো হাসপাতাল, এর চেয়ে ভালো চিকিৎসা আর কোথায় আছে। তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা নেবেন না, তাই আমরা সিএমএইচের কথা বলেছি। তিনি একটা বড় দলের চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী, তাই আমরা তাকে দেশের সবচেয়ে ভালো যেখানে চিকিৎসা ব্যবস্থা, সেখানে নিয়ে যাওয়ার কথা বলছি। যদি তিনি চিকিৎসা চান, তবে এটা প্রত্যাখ্যান করা উচিত হবে না। আর যদি রাজনীতি করেন তাহলে ভিন্ন কথা।’

আলাদা অনুষ্ঠানে দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁতে ঈদবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়াকে পৃথক ব্যবস্থার কথা জানানো হয়েছে।

এদিকে, জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আরোচনা সভায় বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, সরকার চাইলে কারাবিধি মেনেই ইউনাইটেড হাসপাতালে খালোদা জিয়ার চিকিৎসা সম্ভব।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৫ ঘণ্টা,১৩ জুন , ২০১৮
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস