‘প্রতি রাতে জোর করে সে আমার সঙ্গে মিলিত হত’

ঘটনাটি ভারতের সিমলার চিড়গাঁও এলাকার একটি ঘটনা। সিমলার চিড়গাঁও থানায় রামপুরের বাসিন্দা থাকতো এক যুবক যার সাথে একই এলাকার আরেক যুবতীর দীর্ঘ দিনের প্রনয় ছিল।

ঘটনার আগের দিন যুবক ঐ যুবতী কে বলে , “খুব তাড়াতাড়িই তোমায় বিয়ে করব” । আর তাতেই প্রেমিকের সাথে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায় প্রেমিকা।

কিন্তু ঐ প্রেমিক যুবতী কে বাড়ি না নিয়ে , নিয়ে যায় একটি হোটেলে। এর কারন জানতে চাইলে প্রেকিক বিয়ের দোহায় দিয়েই পার পেয়ে যান।

এদিন প্রেমিক-প্রেমিকা ওই হোটেলেই রাত কাটান। শুধু তাই নয়। এই প্রতিশ্রুতি দিয়েই দিনের পর দিন সহবাস করেন ঐ যুবতির সাথে। কিন্তু একদিন যুবতীকে হোটেলে একা রেখে পালিয়েই যায় অভিযুক্ত যুবক। এরপর যুবতী বিয়ের কথা বললেই সে সম্পর্কে অস্বীকার করে।

এরপরেই নিজের বাড়ি পৌঁছে বাড়ির লোকেদের ঘটনার কথা জানায় যুবতী। ফোনেও যুবকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে যুবতী। কিন্তু যুবক তার ফোনের উত্তর দেয়নি।

অতপর চিড়গাঁও থানায় যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। নির্যাতিতা তরুণী জানিয়েছেন, “প্রতি রাতে জোর করে সে আমার সঙ্গে মিলিত হতে চাইত সে। এই বিষয়ে বারন করলেও কোনও কথা অভিযুক্ত যুবক শুনত না বলে অভিযোগ নির্যাতিতা তরুণীর।”

বাংলাদেশ সময়: ১৩০০ ঘণ্টা, ১২ অক্টোবর, ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/নীল

SHARE