জুরাইনে গৃহবধূর আত্মহত্যা

রাজধানীর জুরাইনে পারিবারিক কলহের জেরে গলায় ফাঁস দিয়ে নদী আক্তার (১৭) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (৯ ডিসেম্বর) সকালে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, গত ৮ মাস আগে প্রেমের সম্পর্কে ট্রাক হেল্পার সাজ্জাদ হোসেনের সাথে বিয়ে হয় নদীর । জুরাইন মাদ্রাসা রোডের দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে নদী।

সকালে জুরাইন মুরাদপুর ২১০ নম্বর টিনসেড ভাড়া বাসায় গলায় ফাঁস দেয় নদী। দেখতে পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর ১ টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত নদীর স্বামী সাজ্জাদ হোসেন জানান, রাতে ডিউটি শেষে সকালে বাসায় এসে ঘুমাচ্ছিলেন সাজ্জাদ । তখন সাজ্জাদের মা সাজেদা বেগমের সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় নদীর। এর কিছুক্ষণ পর নদী সাজ্জাদের রুম বাইরে থেকে আটকিয়ে পাশের আরেকটি রুমের আড়ার সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ীর পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে।