যেভাবে চিনবেন দেশি গরু

কোরবানির ঈদ সামনে রেখে দেশের বিভিন্ন হাটে চলছে পশু কেনাবেচা। গ্রামের কিছু মানুষ গরু চিনলেও শহরের মানুষের অধিকাশংই গরু চেনেন না। অনেক সময় সঠিক তথ্যের অভাবে ক্রেতারা দেশি-বিদেশি গরু চিনতে ভুল করেন। এজন্য ক্রেতাদের দেশি গরু চেনার যথেষ্ট আগ্রহ রয়েছে। কিন্তু কিভাবে চিনবেন দেশি গরু, এটা নিয়ে মানুষের কৌতুহলের শেষ নেই।

পশু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশি গরুর আকার-আকৃতি বিদেশি গরুর তুলনায় অনেক ছোট। এছাড়া বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেশি গরু এক রঙের হয়। এদের পা চিকন ও শিং বড় হয়। আর দেশি গরু জবাইয়ের পর চর্বির রং হয় হলুদ, বিদেশি জাতের গরুর চর্বির রং সাদা।

কলকাতা, আসাম, ত্রিপুরা এলাকার গরুও একই আকৃতির হয়ে থাকে। এসব গরুর মাংসের স্বাদও একই ধরনের। এ কারণে এসব এলাকার গরু ও দেশি গরু আলাদা করা সম্ভব হয় না।

ভারতের গরুগুলো সাধারণত আকারে বড় হয়। রঙ ধূসর ও সাদা হয়ে থেকে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে চামড়া পাতলা থাকে। শিং, পা এবং কান লম্বা ও খাড়া আকারের হয়। মুখের গঠন কিছুটা লম্বা।

প্রথমবারের মতো কোরবানির হাটে পাওয়া যাচ্ছে মিয়ানমার ও ভুটানের গরু। এ ছাড়াও রয়েছে নেপালি গরু। এ সব অঞ্চলের গরুর শারীরিক গঠন প্রায় একই রকমের যা সাধারণত সিন্ধু প্রজাতির গরু নামে পরিচিত। গরুগুলো আকারে বড় ও লাল রঙের হয়ে থাকে। গরুগুলোর কপাল বড় ও শিং লম্বা ও বাঁকানো থাকে। চামড়া পুরু, গরুগুলোর পা আকারে শরীরের তুলনায় কিছুটা ছোট।

বাংলাদেশ সময়: ১২০৪ ঘণ্টা, ২৬ আগস্ট, ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/পিকে

  • ট্যাগ
  • Cow