আমি জানি না কবে কোহলির বিপক্ষে খেলার সুযোগ পাবঃ মোহাম্মদ নবী

Mohammad Nabi

ক্রিকেট একটি সংখ্যা নির্ভর খেলা। সে সুবাদে নিত্যনতুন রেকর্ডও হয় প্রতিনিয়ত। তবু সে রেকর্ড অর্জনেও তো পরিশ্রম করতে হয়, তাই রেকর্ড হাতছাড়া করলে মন খারাপ হওয়াটা স্বাভাবিক। আফগানিস্তানের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী অবশ্য একটু ব্যতিক্রম। বহু পরিশ্রমে অর্জিত এক রেকর্ডের একক মালিকানা হারিয়েছেন এ সপ্তাহে। তবু আনন্দিত এই অলরাউন্ডার। কারণ কিছুদিনের জন্য হলেও বিরাট কোহলির সঙ্গী তো হতে পারছেন এ সুবাদে!

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হায়দরাবাদে অনন্য এক ইনিংস খেলেছেন কোহলি। ৯৪ রানের সে ইনিংসে ম্যাচের সেরাও হয়েছেন। তাতে মোহাম্মদ নবীর এক রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ১২বার ম্যাচ সেরা হয়েছেন দুজনই। ডেকান ক্রনিকলসের সঙ্গে কথোপকথনে নবী জানিয়েছেন কোহলির কীর্তিতে কতটা আনন্দিত তিনি, ‘বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানের সঙ্গে একটি রেকর্ড ভাগাভাগি করার অনুভূতি অসাধারণ। আমি এতে খুবই গর্বিত।’

নবী অবশ্য জানেন এ গর্ব করার সুযোগ বেশি দিন থাকবে না তাঁর। কিছুদিন পরেই কোহলি তাঁকে টপকে যাবেন বলে বিশ্বাস আফগান অলরাউন্ডারের, ‘ভারত অনেক বেশি ম্যাচ খেলে। বিশ্বের সব দল ওদের বিপক্ষে খেলার জন্য বসে আছে। আর আমাদের দলের সব দলের সঙ্গে খেলতে হয় অনেক বিরতি দিয়ে দিয়ে, সুযোগ অনেক কম আসে। কোহলি তাই এ রেকর্ড ভাঙার সুযোগ পাবে খুব দ্রুত। যেকোনো সংস্করণেই ম্যাচ সেরা হতে পারা অনেক বড় অর্জন। তবে টেস্ট ম্যাচ পাঁচ দিনের বলের বেশি খেলোয়াড়ের সুযোগ থাকে সেখানে সেরা হওয়ার। কিন্তু সীমিত ওভারের ম্যাচে সব খেলোয়াড় সেরা হওয়ার মতো খেলার সম্ভাব্য সেরা সুযোগ পায় না।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজেই নবীকে টপকানোর সুযোগ ছিল কোহলির। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য কোহলি ভালো করতে পারেননি। আগামীকালের ম্যাচের দিকে তাই চোখ থাকবে নবীর। আর ভবিষ্যতে কোহলির বিপক্ষে খেলার অপেক্ষায় আছেন, ‘আমি জানি না কবে কোহলির বিপক্ষে খেলার সুযোগ পাব আমি… হয়তো এশিয়া কাপ বা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।’