বাগেরহাটে করোনা উপসর্গে আইসোলেশনে ভর্তির ৫ ঘণ্টার পর রোগীর মৃত্যু

Bagerhat

বাগেরহাট সদর হাসপাতালে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া এক রোগী মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট সদর উপজেলার বারুইপাড়া গ্রামের শেখ নুরুল ইসলাম (৫০) করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে এলে দ্রুত তাকে আসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল ৫টায় তার মৃত্যু হয়।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বেলফোর হসোন জানান, করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ডে শেখ নুরুল ইসলাম ভর্তির ৫ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার বিকালে ৫টায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে সন্ধ্যায় পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মৃত্য শেখ নুরুল ইসলামের পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদিকে, করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রোগীর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদের মধ্যে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।