যশোরে চোখ উপড়ে স্কুলছাত্রকে হত্যা

Jashore

তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া সাকিব হোসেন (১২) এক ছাত্রকে যশোরের চৌগাছা উপজেলায় চোখ উপড়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (১১ মে) সকালে উপজেলার স্বরূপপুর গ্রামের একটি খাল থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত সাকিব চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুন্দিপুর বেলেমাঠ গ্রামের মৃত আলমগীর হোসেনের ছেলে। সে চৌগাছা উপজেলার স্বরূপপুর গ্রামে নানা খলিলুর রহমান মন্ডলের বাড়িতে থেকে স্বরূপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়তো।

নিহত সাকিবের নানী ফাতেমা বেগমের বরাত দিয়ে চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) এসএম এনামুল হক বলেন, রোববার (১০ মে) মাগরিবের নামাজের পর থেকে সাকিবকে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজি করে কোথাও সাকিবের সন্ধান পাননি পরিবারের সদস্যরা। সোমবার ভোরে থেকে আবারও সাকিবের নানী ফাতেমা ও তার বোন রহিমা খুঁজতে শুরু করেন। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে সকাল সাড়ে ৬টার দিকে স্বরূপপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের একটি খালে তার মরদেহ ভাসতে দেখেন তারা। এরপর খবর পেয়ে চৌগাছা থানা পুলিশ গিয়ে সেখান থেকে মরদেহ করে।

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজীব বলেন, নিহত শিশুর ডান চোখটি উপড়ে ফেলা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের মোটিভ উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।