মাহি আবার কিসের নায়িকা: মিষ্টি জান্নাত

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়িকা মিষ্টি জান্নাত। তিনি নির্মাতা শাহাদাৎ হোসেন লিটন পরিচালিত ‘লাভ স্টেশন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিষেক বড়পর্দায়। ২ সেপ্টেম্বর খুলনায় জন্মগ্রহণ করেন মিষ্টি জান্নাত। খুলনায় জন্ম হলেও বর্তমানে তিনি ঢাকায় বসবাস করছেন। পড়াশোনা করেছেন ডেন্টাল কলেজে।

ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় চলচ্চিত্র ‘তুই আমার রানি’ এবং তামিল ও ভোজপুরি রংবাজ খিলাড়িতে অভিনয় করছেন মিষ্টি। জান্নাত অভিনীত এখন পর্যন্ত মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির সংখ্যা তিনটি। লাভ স্টেশন ছবিতে জুটি বেঁধে ছিলেন নায়ক বাপ্পীর সাথে। চিনি বিবি ছবিতে জুটি বেঁধে ছিলেন নায়ক জয় চৌধুরির সাথে ও সর্বশেষ তুই আমার ছবিতে কাজ করেছেন নায়ক সাইমন সাদিকের সাথে।

আপাতত ছবির ব্যস্ততা না থাকলেও সম্প্রতি দেশের শীর্ষস্থানীয় একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে ঢালিউড নায়িকা মাহিয়া মাহিকে নিয়ে মন্তব্য করে নতুন করে আলোচনায় এ অভিনেত্রী।

আপনি কি মাহিয়া মাহিকে দেখে সিনেমায় এসেছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে এ অভিনেত্রী বলেন, না, মাহিকে দেখে নয়। ‘অগ্নি’ দেখে চলচ্চিত্রে অভিনয়ে আগ্রহী হয়েছি। মাহিয়া মাহিকে কিন্তু আমার ‘হিরোইন’ মনে হয় না। একজন হিরোইনের যেমনটা হওয়া উচিত, তিনি মোটেও তেমন না। আমার তো মনে হয়, মাহি আবার কিসের নায়িকা! তাকে দেখে আমার চলচ্চিত্রে আসার প্রশ্নই ওঠে না।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার অফিসে একটা মডেল কর্নার ছিল। আমি সেখানে প্রথম মাহিয়া মাহিকে দেখেছি। দেখতে শুকনা ছিল। গায়ের রং কালো। প্রথম দেখায় পছন্দ করার কিছুই ছিল না। শুধু তা-ই নয়, বাপ্পিকেও নায়ক মনে হয়নি। তার ফিটনেসও ভালো ছিল না।

তাদের দেখে আমি আবদুল আজিজ ভাইকে সরাসরি বলেছিলাম, তারা আপনাদের হিরো-হিরোইন! তাদের তো অনেক গ্রুমিং করাতে হবে। আমি যখন প্রথম সিনেমায় অভিনয় শুরু করি, তখন বাপ্পি এই কথাটা আমাকে বলেছিল। এখন কিন্তু বাপ্পি আমার খুব ভালো বন্ধু।