পদত্যাগ করতে পারেন থেরেসা মে

আগামী জুনের প্রথম সপ্তাহে ব্রেক্সিট নিয়ে আবারও ভোট হবে। ওই ভোটে ব্রেক্সিট পরিকল্পনা সফল না হলে পদত্যাগ করতে পারেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। পরবর্তী নির্বাচনের সময়সীমা জানিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে প্রবল চাপের মুখে এই ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী মে। টোরি এমপিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মের এক বৈঠকের পরই এ বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন তিনি। অনেকদিন ধরেই ডাউনিং স্ট্রিট থেকে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে আসছেন ওই এমপিরা।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে এবারও হেরে গেলে থেরেসা মে পদত্যাগ করবেন। ইতোমধ্যেই তিনবার বেক্সিট ভোটে হেরে গেছেন মে। এদিকে, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন জানিয়েছেন, থেরেসা মে পদত্যাগ করার পর তিনি নির্বাচনে লড়বেন।

গত বছর শেষের দিকে একটি আস্থা ভোটে থেরেসা মের দল কনজারভেটিভ পার্টির এমপিদের ভোটে কোন রকমে উতরে গিয়েছিলেন তিনি। সামান্য ভোটের ব্যবধানে তিনি জয়ী হয়েছিলেন। ডিসেম্বরের আগে নতুন করে আনুষ্ঠানিকভাবে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না মে।