রাজধানী ছাড়ছে মানুষ

পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে রাজধানী ছাড়ছে মানুষ। সকাল থেকে বাস টার্মিনাল ও রেলস্টেশনে বাড়ছে যাত্রীদের চাপ।রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে ভোর থেকেই যাত্রীরা আসতে শুরু করে। প্রতিটি প্ল্যাটফর্মেই হাজার হাজার মানুষেল ভিড়। দু’একটি ছাড়া প্রায় সব ট্রেনই এখন পর্যন্ত নির্ধারিত সময়ে স্টেশন ছেড়ে গেছে। কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্ত্তী জানান, পাঁচটি বিশেষ ট্রেনসহ মোট ৫৯টি ট্রেন আজ রাজধানী ছেড়ে যাবে।

তবে ট্রেন ছাড়তে দেরিতে অসন্তোষ জানিয়েছেন যাত্রীরা।সকালে কয়েকটি ট্রেন নির্ধারিত সময়ের পর কমলাপুর স্টেশন ছেড়েছে। এরমধ্যে দুটি বিশেষ ট্রেনের দুটিই ছাড়তে দেরি হয়।দেওয়ানগঞ্জ ঈদ স্পেশাল ট্রেনের ছাড়ার সময় ছিল সকাল পৌনে ৯টার; তা ছেড়েছে নির্ধারিত সময়ের পৌনে একঘণ্টা পর। লালমনিরহাটের লালমনি ঈদ স্পেশাল ট্রেন বেলা সোয়া ৯টায় ছেড়ে যাওয়ার কথা। এটি ছাড়ে সকাল ১১টায়

এদিকে, গাবতলী বাস টার্মিনালেও রয়েছে ঘরমুখো মানুষের ভিড়। এখন পর্যন্ত নির্ধারিত সময়েই বাসগুলো টার্মিনাল ছেড়ে যাচ্ছে। যে কোন সময়ের চেয়ে সড়কের অবস্থা ভালো আছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সকালে গাবতলী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন করে একথা জানান তিনি। ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে নিয়োজিত রয়েছে র‌্যাব, পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা ও আনসার সদস্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৭ ঘণ্টা,১৩ জুন , ২০১৮
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এস